'কৃষ্ণকলি' ধারাবাহিকের অভিনেত্রীর তিয়াশা রায়ের জীবনে নতুন আশার আলো। করোনা আবহে ভরপুর ২০২০-কে বিদায় জানাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে বিশ্বাবাসী। তারই মধ্যে নতুন বছরের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিয়াশা। দিন কতক আগে যাওয়া এক পিকনিকের ক্যানডিড ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, "হাসতে থাকো। নতুন বছরের অপেক্ষায় রয়েছি।" এই পোস্টে ভক্তরা তাঁকে নতুন বছরের আগাম শুভেচ্ছা জানাতে শুরু করে দিয়েছে। প্রসঙ্গত, কৃষ্ণকলি ধারাবাহিকে টানটান উত্তেজনা। কাছাকাছি এসেও দূরে সরে গিয়েছিল নিখিল ও শ্যামা। 

তবে নিজের অজান্তেই ফের শ্যামার সঙ্গে আজ একই ছাদের তলায় নিখিল এবং গোটা পরিবার। কৃষ্ণা এবং তার মা অর্থাৎ শ্যামা বেনারস থেকে কলকাতা এসে পৌঁছয় সেখান থেকে নিখিলের বাড়িই এখন তাদের ঠিকানা। তবুও কিছুতেই নিখিল ও শ্যামার সরাসরি সাক্ষাৎ হওয়ার অবকাশই নেই। আঁচলের নিচেই থেকে যাচ্ছে শ্যামার আসল পরিচয়। অবশেষে একে অপরের সম্মুখীন হল দু'জন। মুন্নির ভুল চালেই শ্যামা ও নিখিল কি এবার এক হয়ে যাবে। বাড়ির এক অনুষ্ঠানে কৃষ্ণার জ্যুসে মদ মিশিয়ে দেয় মুন্নি। যাতে সে বাড়ি ভর্তি অতিথিদের সামনে অপদস্ত হয়। 

আরও পড়ুনঃকলকাতা ছেড়ে দুবাইয়ে পার্টিতে মত্ত মিমি, বান্ধবীর গালে ঠোঁটের আলতো ছোঁয়ায় New Year প্রস্তুতি

 

আঁট ঘাট বেঁধে মুন্নি ময়দানে অবশেষে কিছুতেই সফল হল না সে। কৃষ্ণার নেশার ঘোরে গান না গাইতে পারায়, গান ধরল শ্যামা। তখনই তাঁর ঘোমটা সরে যাওয়ায় তাঁকে স্পষ্ট দেখতে পায় নিখিল। শ্যামাকে এতদিন পর চোখের সামনে দেখে অবাক সে। উনিশ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া শ্যামা ফের ফিরে এল নিখিলের জীবনে। 'কৃষ্ণকলি' ধারাবাহিকে নতুন বছর আসার আগেই থাকছে নতুন চমক। নতুন প্রোমোতে উত্তেজনা ছড়িয়েছে দর্শকমহলে। তবে কি সত্যি সামনা সামনি দেখা হতে চলেছে নিখিল ও শ্যামার। উত্তর পেতে ব্যকুল দর্শক।