দেখতে দেখতে পুজো এল এবং চলেও গেল। এমনটাই হয় প্রতি বছর। তবুও কোথায় যেন মন খারাপের রেশ দশমীর পর কাটতেই চায় না। তেমনটাই হয়েছে মিমি চক্রবর্তীর। মন খারাপের দেশে ছুঁটে গিয়েছে মিমির মন। পুজো শেষ হতেই পোস্ট পুজো ব্লুজ-এ ভরে গিয়েছে অভিনেত্রীর জীবন। পুজোর পর এমন মন খারাপ হওয়াটাই স্বাভাবিক। তার মধ্যে মিমি একেবারে খাটি বাঙালি। পুজোর পর মন খারাপ হওয়াটাই স্বাভাবিক। মিমির বাঙালিয়ানা নিয়ে কোনও সন্দেহই নেই। 

পুজোর পর আর কোনও কাজেই মন বসছে না মিমির। সেই কথাই বারে বারে নিজের নানা পোস্টের মাধ্যমে জানাচ্ছেন মিমি। একেই পুজো শেষ, তার উপর ফের সেই করোনা আবহ নিয়ে চিন্তা বেড়েছে অভিনেত্রীর। নিজের এবং পরিবারের সদস্যদের কথা চিন্তা করার পাশাপাশি তিনি নিজের অনুরাগীদেরও অনুরোধ করলেন সুস্থ থাকতে ও সাবধানে থাকতে। প্রসঙ্গত, লন্ডনে 'বাজি' ছবির শ্যুটিং সেরে সপ্তাহ খানেক আগেই দেশে ফিরেছেন মিমি চক্রবর্তী। 

আরও পড়ুনঃ'জীবনে রঙের প্রয়োজন নেই', মন খারাপের সুর মধুমিতার কথায়, তবে কি ভালবাসায় ব্যর্থতা

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Post pujo blues😞

A post shared by Mimi (@mimichakraborty) on Oct 28, 2020 at 3:20am PDT

আরও পড়ুনঃউন্মুক্ত অ্যাবসে ধরা দিয়ে চূড়ান্ত HOT তৃণা, শ্যামাকে ছেড়ে গুনগুনের প্রেমে নিখিল

করোনা আবহ হোক বা শ্যুটিং কোনও মতেই পুজো মিস করা যাবে না। লন্ডনে জিতের সঙ্গে শ্যুটিং সেরেই কলকাতায় এসে ফের নিজের পুজো রিলিজ গুলি নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন মিমি। ২১ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছে 'SOS কলকাতা'। এই ছবিতে মিমি একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন। অন্যদিকে বাড়ির মধ্যেই চলছে পুজোর মজা। পঞ্চমী থেকে শুরু হয়ে গিয়েছিল মিমির পুজো। পুজোর চারদিন সাংঘাতিক ভুড়িভোজের ডায়েটে ছিলেন মিমি। পুজোর মধ্যে বাড়ির বিভিন্ন বাঙালি খাবারের স্বাদই তাড়িয়ে তাড়িয়ে নিয়েছিলেন মিমি। এখন অবশ্য ব্যাক টু নিজের পুরনো ডায়েট।