বাঙালির কাছে দুর্গাপুজোর আনন্দ দশমীতেই শেষ হয় না। বরং চলতে থাকে কালীপুজো অবধি। এবার সেই আনন্দের জেরেই কলকাতা ছেড়ে নিজের শহরে ছুটে গেলেন মিমি চক্রবর্তী। অভিনেত্রী সাংসদ এসবের পরিচয় কিছুক্ষণের জন্য ভুলে সোজা চলে গেলেন জলপাইগুড়ি। সেখানেই নিজের পাড়ার কালীপুজোয় সামিল হয়েছিলেন তিনি। বহুদিন পর পাড়ার কালীপুজোতে থাকতে পেরে আবেগে ভেসেছিল অভিনেত্রীর মন। 

মিমি সেই সব ছবি পোস্ট করেছেন নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে তাঁকে হালকা নীল ও ধূসর রঙের কুর্তিতে দেখা যাবে। ভারী দুল পর, হালকা মেকআপেই সেজে উঠেছেন মিমি। মুখে রয়েছে মাস্কও। ছবিগুলি শেয়ার করে বেশি কিছু বলার মত অবস্থায় নেই তিনি। কেবল প্রদীপের ইমোজি দিয়েই শেয়ার করেছেন ছবিগুলি। কারণ বাড়িতে ফেরার পর তাঁর কাছে ক্যাপশনে সাজিয়ে গুছিয়ে লেখার মত কিছু নেই। 

আরও পড়ুনঃআশঙ্কাজনক সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অত্যন্ত স্বল্পমাত্রায় কাজ করছে মস্তিষ্ক

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Mimi (@mimichakraborty)

 

ছবিগুলির দিকে তাকাতে যথেষ্ট সাহস জুগিয়ে দেখতে হবে। নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে পোস্ট করলেন ঝলসে যাওয়া মুখ ও শরীরের ছবি। যেখানে মুখের বাঁ দিকটা পুড়ে গিয়ে ঝলসে গিয়েছে। এমনকি হাত, ঘাড়ও পুড়ে গিয়েছে। ছিঁড়ে গিয়েছে জামা। এমন অবস্থা মিমির হল কীকরে। অবশ্যই ছবিগুলি কোনও শ্যুটিং সেটেই তোলা। হলুদ রঙের কুর্তি, মেকআপ বলতে সেই ঝলসে যাওয়া চেহারা এবং হাত গলাই হল ইউএসপি। পুড়ে গিয়ে দগদগে ঘায়ের এই অংশ গুলি যেন চোখে দেখা যাচ্ছে না। ছবি গুলি পোস্ট করে ক্যাপশনেই সবটা পরিষ্কার করে দিয়েছেন। হ্যালোউইনের ছবি পোস্টের ছড়াছড়ি চারিদিকে। যার কারণে মিমিও এই ভয়ঙ্কর চেহারার ছবি পোস্ট করেছেন।