একাধিক বিতর্ক এড়িয়ে অবশেষ বুধবার মুখ খোলেন সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান। তিনি সাফ একটি বিবৃতিতে জানিয়ে দেন, যে তিনি বিবাহিত নন। কারণ হিসেবে বলেন, তাঁর বিয়ে হয়েছিল তুরষ্কে। কিন্তু কোথাও আইনি মতে এই বিয়ে হয়নি। যার ফলে বিচ্ছেদের প্রশ্ন নেই। নেই বিয়ের তকমাও। স্পষ্ট ভাষায় বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, এটাকে লিভইন বলা চলে। যদি তাই হয়, তাহলে পার্লামেন্টে কেন উল্লেখ তিনি বিবাহিত! 

আরও পড়ুন- 'আমি জানি আমি নুসরতের জন্য কি করেছি, বাকি কথা কোর্টে হবে', প্রতিক্রিয়া নিখিলের

 

এমনই প্রশ্ন এবার নুসরতের দিকে ছুঁড়ে দিল নেট দুনিয়া। এদিন সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়, উঠে আসে ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের ছবি। যেখানে সদ্য বিবাহিতা নুসরত পার্লামেন্টে গিয়ে শপথ নিয়েছিলেন। হাতের মেহেন্দি স্পষ্ট ধরা পড়ে ভিডিওতে। সেখানে দাঁড়িয়ে তিনি জানান যে তিনি বিবাহিত। এমন কি পার্লামেন্টের নথিতেও তা স্পষ্ট ভাষায় লেখা। লেখা রয়েছে স্বামীর নামও। এই ছবি এখন ভাইরাল নেট দুনিয়ায়। 

 

 

অমিত মালব্য এদিন সেই শপথের ভিডিও তুলে ধরে লেখেন, নুসরতের ব্যক্তিগত জীবন, সে কাকে বিয়ে করেছে করেনি, তা নিয়ে কারুর মাথা ব্যাথা নেই। তবে নির্বাচনে জেতার পর তিনি যখন সংসদ ভবনে গিয়েছিলেন শপথ গ্রহণ করতে, ঠিক তখনই তিনি জানান, তিনি বিবাহিত। তবে কি তিনি সংসদ ভবণে দাঁড়িয়ে মিথ্যে কথা বলছিলেন! এই প্রশ্ন বর্তমানে অনেকেরই, একের পর এক পোস্ট তাই নুসরতের বিবৃতির পর ভরে উঠছে নেট পাড়ায়।