টলিউডে আগামী ১০ জুন থেকে শুরু হচ্ছে শ্যুটিং। করোনার সংক্রমণ এমনই অবস্থায় ক্রমেই বেড়ে চলেছে। কিন্তু আর্থিক অনিশ্চয়তা কাটাতে এবার খুলতেই হচ্ছে বিনোদন জগত। টেকনিশিয়ান থেকে শুরু করে অভিনেতা-অভিনেত্রীরা, সংকটের মধ্যে কাটাচ্ছিলেন দিন। পরিস্থিতি খানিক স্বাভাবিক হতেই ছন্দে ফেরার পথে টলিউড। কিন্তু এখনও কাটেনি করোনার দুর্যোগ। তাই সতর্কতা মেনে চলতে হবে প্রত্যেককেই। 

আরও পড়ুনঃ করোনায় আক্রান্ত থালাইভা, ভুয়ো খবর রটিয়ে বিপাকে বলিউডের এই অভিনেতা

চতুর্থদফার লকডাউনের শেষেই একাধিক নিয়মে বেঁধে ফেলা হয়েছিল শ্যুটিং পাড়াকে। জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, কোনও ঘনিষ্ট বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যের শ্যুট করা যাবে না। চুম্বনের দৃশ্য রাখা যাবে না। শ্যুটিং ফ্লোরে বজায় রাখতে হবে দুরত্ব। ৪ জুন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠকে বসে  আর্টিস্ট ফোরাম, প্রডিউসার্স গিল্ড, আর্টিস্ট ফোরাম ও চ্যালেন কতৃপক্ষের সদস্যরা। সেখানন থেকেই সামনে আসে বেশকিছু নিয়মাবলি, সব রকমের সতর্কতা মেনে চলতে হবে শ্যুটিং চলাকালিন। বাইরে শ্যুটিং করতে গেলে দেখে নিতে হবে তা কন্টাইনমেন্ট জোন কি না। পাশাপাশি ফ্লোরে রাখা হবে থার্মাল গান। 

আরও পড়ুনঃ করোনায় আক্রান্ত থালাইভা, ভুয়ো খবর রটিয়ে বিপাকে বলিউডের এই অভিনেতা

এখানেই শেষ নয়, শ্যুটিং চলা কালিন মাত্র ছয়জন এক সঙ্গে থাকতে পারবেন। সর্বাধিক ৩৫ জনকে নিয়ে করতে হবে শ্যুটিং। ১০ বছরের ছোট শিশুদের ফ্লোরে আনা যাবে না। ৬৫ বছরের উর্দ্ধে যাঁদের বয়স, সেই প্রবীণ তারকারা চাইলে মুচিলেখা দিয়ে কাজে যোগ দিতে পারে। সবার ক্ষেত্রে করা হবে ২৫ লক্ষ টাকার বিমা। যে টাকা দেওয়া হবে ৫০ ভাগ চ্যানেল, ৪০ভাগ প্রযোজক ও ১০ ভাগ আর্টিস্ট ফোরামের পক্ষ থেকে। মেকআপের ক্ষেত্রেও মিলল ছাড়। তারকারা, নিজের মেকআপ, নিজেই করে নিতে পারবেন। এতো গেল ধারাবাহিকের কথা, সিনেমা নিয়ে বৈঠক হবে রবিবার, সেদিনই জানা যাবে কীভাবে শুরু হবে ছবির কাজ।