একঘেয়েমি থেকে দর্শকদের  মুক্তি দিতে এবং দীর্ঘ এতদিনের লকডাউনের মধ্য ঘরের মধ্য সকলকে আটকে রাখতে নিজেদের মতো করে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দুরদর্শন। মাত্র কয়েকদিনেই বেসরকারী চ্যানেলগুলোকে টেক্কা দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে চলে এসেছে এই  দুরদর্শন। লকডাউনের জেরে 'রামায়ণ', 'মহাভারত'-এর মতো পুরোনো সিরিয়ালেই মজেছে দর্শক। আর তার ফলেই একলাফে বেড়ে গিয়েছে দর্শকসংখ্যা।

আরও পড়ুন-চিনতে পারছেন 'জুনিয়র আমির'-কে , রইল হ্যান্ডসাম হাঙ্ক-এর একগুচ্ছ ছবি...

'রামায়ণ'-এ রাবণের কথা কার না মনে আছে। আর সেই রাবণ খোদ যখন নিজের অভিনয়টা টেলিভিশনের সামনে দেখে তাও আবার ৩০ বছর পরে। কেমন হবে তার প্রতিক্রিয়া। সম্প্রতি টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে স্বয়ং রাবণ ঘরে বসে নিজের অভিনয়টা মন দিয়ে দেখছেন। নিজেকে পুরোনো দিনের রাবণের চরিত্রে দেখে রীতিমতো আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছেন অভিনেতা। দেখে নিন ভিডিওটি।
অরবিন্দ ত্রিবেদী যিনি রাবণের চরিত্রে অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়েছিলেন।  বর্তমানে তার বয়স ৮৪ বছর। এই বয়সে এসে লকডাউনে বসে আবার নিজেকে দেখতে পাবে এটা হয়তো রামায়ণের কোনও অভিনেতারাই ভাবেননি। দর্শকরা যেমন রাময়ণের পুনঃপ্রচার নিয়ে খুশি হয়েছেন তেমনই খুশি হয়েছেন  রামায়ণের তারকারাও।  সম্প্রতি যে ভিডিও ক্লিপিংসটি প্রকাশ্যে এসেছে সেখানে দেখা গেছে, রামায়ণের সেই বিখ্যাত  সীতাকে অপহরণ করার দৃশ্যই মন দিয়ে দেখছেন ৮৪ বছরের বর্ষীয়ান অভিনেতা অরবিন্দ ত্রিবেদী। এখনও পর্যন্ত যাদের নেটফ্লিক্স বা অ্যামাজন প্রাইম দেখার সুবিধে নেই,  এর ফলে তারা অত্যন্ত উপকৃত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে।  মানুষ যাতে ঘরেই আটকে থাকতে পারেন, তার জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দুরদর্শনের এই জনপ্রিয় শো-এর জনপ্রিয়তা এখনও রয়েছে দর্শকদের মধ্যে।  বাইরের কাজ বন্ধ হওয়ায় ঘরে অঢেল সময় রয়েছে প্রত্যেকের। আর সেই অমূল্য সময়ের মাঝখানেই যে যা পারছেন তা-ই করছেন। আর সঙ্গে সঙ্গেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দিচ্ছেন। যা এই পরিস্থিতিতে অনেকের কাছেই বিরক্তির কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। দুরদর্শনে রামায়ণ আসার পরে মানুষ কতটা গ্রহণ করেছে এই সিরিয়ালকে তা দর্শক সংখ্যা থেকেই প্রমাণিত।



আরও পড়ুন-করোনাভাইরাস LIVE, ৯,০০০ ছাড়াল দেশে আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যা ৩০০ বেশি ...

আরও পড়ুন-করোনায় রাজ্য়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭, জানাল খোদ স্বাস্থ্য় দফতর...

আরও পড়ুন-রাজ্য়ে করোনা আক্রান্ত আরও দুই চিকিৎসক, কী করলে মিলবে সমাধান হন্য়ে ডাক্তাররাই...