গোটা বিশ্ব জুড়ে করোনার ত্রাস।সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কে নাজেহাল বিশ্ববাসী। করোনার সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন সর্বস্তরের মানুষ।  বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রায় সব দেশ। মহামারি থেকে বাঁচতে সকলেই আর্থিক অনুদান করছেন।  যত দিন যাচ্ছে মৃত্যুমিছিল যেন ত্রমশ বাড়ছে।  করোনা মোকাবিলায় ত্রান তহবিলে এবার এগিয়ে এসেছেন বলি ইন্ডাস্ট্রি। প্রত্যেকেই  সাধ্যমতো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আবারও লকডাউনের মধ্যে টেলিভিশনের কলাকুশলীদের পাশে দাঁড়ালেন বলিউডের আক্কি। সকলকে ছাপিয়ে করোনা লড়াইয়ে তিনিই যেন এগিয়ে। 

আরও পড়ুন-দূরদর্শনের পর এবার বাংলায় সম্প্রচারিত হবে 'রামায়ণ', জেনে নিন সময়সূচী...


মুম্বইয়ের থিয়েটারের পর সিনে ও টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির পাশে দাঁড়িয়েছেন অক্ষয় কুমার। সম্প্রতি ৪৫ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য দান করেছেন সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্ট অ্যাসোসিয়েশন-কে। সিনে ও টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির ১৫০০ সদস্য, এবং জুনিয়র আর্টিস্ট এর ফলে অনেকটাই উপকৃত হবেন। শুধু তাই নয়, সিনে ইন্ডাস্ট্রির দিনমজুরেরাও অনেকটাই আর্থিক দিক থেকে উপকৃত হবেন। প্রত্যেকেই মাসে ৩ হাজার টাকা করে অনুদান পাবেন। সূত্র থেকে জানা গেছে, যতদিন পর্যন্ত না পুরোপুরি কাজ শুরু না হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত এই অনুদান দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন-আতঙ্কের মধ্যেই প্রাকৃতিক দুর্যোগ, সঙ্কট মোকাবিলায় রাজ্যের পাশে দাঁড়ালেন বাঙালি অভিনেত্রী...

সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্ট অ্যাসোসিয়েশন-এর সম্পাদক অমিত বেহল এই সমস্যার কথা আয়ুব খানের সঙ্গে এই ফান্ড নিয়ে কথা বলেছিলেন। পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। তারপরই আয়ুব খান বলি প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। সাজিদই গোটা ঘটনাটি অক্ষয়কে জানিয়েছিলেন। সাজিদের থেকে গোটা ঘটনাটি শুনেই এই অনুদানের কথা ঘোষণা করেছেন অক্ষয়। ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ২৫ কোটি টাকা দিয়েছেন অক্ষয় কুমার। এছাড়াও দ্বিতীয় দফায় বৃহন্মুবাই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনকে নগদ ৩ কোটি টাকা সাহায্য দিয়েছেন অভিনেতা। চিকিৎসক, নার্সদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তাদের মাস্ক, করোনা পরীক্ষার কিট, এছাড়া প্রয়োজনীয় জিনিস কেনার জন্য তিনি এই অর্থ দান করেছেন। আপকামিং ছবি 'সূর্যবংশী'-তে দেখা যাবে অভিনেতাকে। ফের দীর্ঘদিন বাদে ক্যাটরিনার সঙ্গে জুঁটি বাঁধতে দেখা যাবে অক্ষয়কে।