২০১৬ সালে বিতর্কের ঝড় তুলেছিল অস্কার। একের পর এক সোশ্যাল মিডিয়াতে উঠে এসেছিল নয়া অভিযোগ, অস্কারে কেবলই নাকি শ্বেতাঙ্গদের দাপট। এই মন্তব্যর পরই ট্রোল হতে থাকে অস্কার। সেইবারই নয়া প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল অস্কার অ্যাকাডেমি থেকে। এবার ২০২০ সালে রাখা হল কথা। আকাডেমি অফ মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সের তরফ থেকে ডাক পেলেন এবার আলিয়া ভাট ও হৃত্বিক রোশন। 

এই দুই তারকার সঙ্গে ডাক পেয়েছেন আরও কয়েকজন বলিউড কলাকুশলী। এই আমন্ত্রণে যদি তাঁরা সাড়া দেন, তবে অস্কারে ভোট করার ক্ষমতাও থাকবে এঁনাদের। মঙ্গলবারই ৮১৯ আমন্ত্রিত নাম ঘোষণা করা হয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে বলিউডের দুই স্টারের নাম।  অস্কারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, ৪৫ শতাংশ মহিলা, ৩৬ শতাংশ অন্য সম্প্রদায়ের মানুষ, ৪৯ শতাংশ আন্তর্জাতিক তারকা, থাকবেন এই বিচার ব্যবস্থাতে। 

সঙ্গে উল্লেখ ছিল মোট ৬৮টি দেশ থেকে, ৭৫ জন অস্কার মনোনীত এবং পাঁচ জন সায়েন্টিফিক ও টেকনিকাল পুরস্কার বিজয়ীও জায়গা করে নেবেন এই অস্কারে। যদিও বর্তমানে েই খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই আবারও ঝড় উঠেছে নেট দুনিয়ায়। নেপোটিজমকে কটাক্ষ করে অনেকেই বলেছে, সেই জায়গা করে নিল দুই স্টারকিড। প্রশ্ন তুলে এখন ভাইরাল এই খবর নেট দুনিয়ায়।