সারা দেশ জুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস। একের পর একজন এই মারণ রোগের শিকার হচ্ছেন। মহামারি থেকে বাঁচতে সকলেই আর্থিক অনুদান করছেন। করোনা মোকাবিলায় ত্রান তহবিলে এবার এগিয়ে এসেছেন বলি ইন্ডাস্ট্রি। প্রত্যেকেই  সাধ্যমতো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।  সম্প্রতি কিছুদিন আগে  বলিউডের কিং খান নিজের অফিস ছেড়ে দিয়েছিলেন কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য। এবার শাহরুখের দেখানো সেই পথেই হাঁটলেন বলি অভিনেত্রী আয়েশা টাকিয়া। বহন্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল  কর্পোরেশনকে তাদের পাঁচতারা হোটেলের দরজা খুলে দিলেন কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য। আর এই পাঁচতারা হোটেলেই তৈরি হবে নতুন কোয়ারেন্টাইন সেন্টার।

আরও পড়ুন-করোনার উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও ফিরিয়ে দিল হাসপাতাল, ভয়াবহ অভিজ্ঞতার শিকার দৃশ্যম অভিনেত্রী...

গোটা বিশ্ব জুড়ে করোনার ত্রাস। সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কে নাজেহাল বিশ্ববাসী।  যত দিন যাচ্ছে মৃত্যুমিছিল যেন ত্রমশ বাড়ছে।  করোনার সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন সর্বস্তরের মানুষ।  বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রায় সব দেশ। এই কম সময়ের মধ্যে এত মানুষের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানানো সত্যিই খুব কঠিন ব্যাপার। সকলে মিলে একক্ষিত হয়েল করোনা মোকাবিলায় সামিল হয়েছেন। শিল্পপতি থেকে তারকা সকলেই নিজেদের অফিস কোয়ারেন্টাইনের জন্য ছেড়ে দিয়েছেম।  অভিনেত্রী আয়েশা টাকিয়া ও তার স্বামী ফারহান আজমিও নিজেদের পাচতারা হোটেল দিয়ে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন-হাজার টাকার বিনিময় মাত্র ১০ মিনিটেই করোনা নির্ণয়, নতুন টেস্ট কিট তৈরি কেরলের সংস্থায়...

আরও পড়ুন-করোনা রোগীর জন্য় তিন ধরনের ব্য়বস্থা, কী বলছে কেন্দ্রের নির্দেশিকা...

আরও পড়ুন-করোনা পরীক্ষায় নয়া নির্দেশিকা রাজ্য়ের, ডাক্তারদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ দেখছে বিজেপি...

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য নিজেদের হোটেল দিয়ে দেওয়ার পর অভিনেত্রী জানিয়েছেন, 'আমরা আমাদের গালফ হোটেল বিএমসি-কে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের জন্য দিয়ে দিয়েছি। এই সংকটের দিনে একে অপরের পাশে রয়েছি এটাই সবথেকে বড়।' শাহরুখের মতোন আয়েশার এই নজিরবিহীন অবদান সকলেরই মন কেড়েছে। আয়েশা ছাড়াও  বলি অভিনেতা সোনু সুদ চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য জুহুর হোটেল খুলে দিয়েছেন। যারা নিজেদের কথা, পরিবারের কথা না ভেবে সকলের জন্য দিনরাত এক করে খাটছেন তাদের কথা ভেবেই এই উদ্যেগ নেওয়া, জানিয়েছেন অভিনেতা।