কোভিড পরিস্থিতিকে ঘিরে চারিদিকে এখন ত্রাহি ত্রাহি রব। প্রতিনিয়ত মানুষ তাদের প্রিয়জনদের হারাচ্ছেন। এহেন ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে দেশে অক্সিজেনের ঘাটতিতে শয়ে শয়ে রোগী মারা যাচ্ছে। হাসপাতালে বেডের অভাব, মিলছে না অক্সিজেন, বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু হচ্ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ অল্প বয়সীদের জন্য মারাত্মক আকার নিচ্ছে। তবে গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, যত দিন যাচ্ছে কোভিডের নতুন নতুন লক্ষণ প্রকাশ্যে আসছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তার অন্যতম লক্ষণ শ্বাসকষ্ট। এবং করোনায় আক্রান্ত হলে মুহূর্তের মধ্যে অক্সিজেন লেভেল  কমতে থাকে। 

আরও পড়ুন-একাধিক নারীসঙ্গ রাজের, হাল ছাড়েননি শুভশ্রী, জীবনের শ্রেষ্ঠ সিদ্ধান্ত নিয়ে গর্বিত 'পরিণীতা'...

যাদের শরীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভাল এবং যারা ফুসফুসের যত্ন নেন তাদের খুব বেশি ক্ষতি করতে পারে না করোনা ভাইরাস। কিন্তু এহেন পরিস্থিতিতে ফুসফুসের যত্ন নেওয়া ভীষণ জরুরি, সঙ্গে ইমিউনিটি বাড়ানো। কিন্তু কীভাবে যত্ন নেবেন ফুসফুসের। শরীরে অক্সিজেন লেভেল বাড়াতে এবং ফুসফুসকে ভাল রাখতে সহজ উপায় বাতলালেন মালাইকা। 

 

 

সম্প্রতি মালাইকা আরোরা নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন যেখানে তিনি তিনটি যোগার উল্লেখ করেছেন। এবং এই তিনটি যোগা নিয়মিত করলেই ফুসফুস যেমন শক্তিশালী হবে তেমনই বাড়বে ইমিউনিটি। মালাইকা আরোরা কতটা ফিটনেস ফ্রিক, তা সকলেরি জানা।  সেক্সি ফিগার ধরে রাখতে ওয়ার্কআউটের পাশাপাশি নিয়মিত যোগাভ্যাসও করেন অভিনেত্রী।

 

 

মালাইকার সেক্সি চাবুক ফিগারের নেশায় বুঁদ আট থেকে অষ্টাদশী।  জনপ্রিয় অভিনেত্রী তথা ফিটনেস গুরু হিসেবেও তাকে মানেন অনেকেই। ৪৭-এর মালাইকাকে বডি ফিটনেসে টেক্কা দেওয়া মুশকিল। হাতে সময় থাকুক বা না থাকুক তিনি তার রুটিন মেনেই চলেন। সকালে ঘুম থেকেই উঠেই যোগাভ্যাস তারপর হাঁটা,সুইমিং, দৌঁড়ানো এর সঙ্গে ওয়ার্ক আউট করেন।প্রতিদিন নিয়ম করে ৩০ মিনিট হাঁটার চেষ্টা করেন মালাইকা আরোরা। তবে সবচেয়ে বেশি যোগা করতে ভালবাসেন নায়িকা। নিজের বাড়তি ওজন কমানোর জন্য হাঁটা সবচেয়ে ভাল অপশন বলে জানিয়েছেন মালাইকা।এমনকী বাইরে কোথাও বেরাতে গেলেও শরীরচর্চায় কোনও ঘামতি রাখেন না মালাইকা। এছাড়া শরীরচর্চা ছাড়াও ডায়েট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ৩০ শতাংশ ব্যায়াম এবং ৭০ শতাংশ স্বাস্থ্যকর খাবার এইটাই হল মালাইকার ফিটনেস মন্ত্র। যদিও তিনি একঘেয়ে ডায়েট পছন্দ করেন না। মাঝেমধ্যেই নিজের ডায়েট পাল্টে ফেলেন মালাইকা।