সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে ভারতীয় সিনেমা অপূরণীয় ক্ষতি। একজন প্রতিভাবান অভিনেতাকে হারাল বলিউড। তার সহজ সরল অভিনয় থেকে, মিষ্টি হাসি মনে দাগ কাটেনি এমন মানুষের সংখ্যা প্রায় হাতে গোনা। কিন্তু ১৪ জুন বলিউডের সেই কালো দিন। কোনও কিছু বোধগম্য হওয়ার আগেই যেন সবটা শেষ হয়ে গেল। শুধু কেন? এই প্রশ্নটাই যেন মুখ থেকে সড়ছে না তার মৃত্যুর ৪ দিন পরই। কেন-র উত্তরটার জন্য সকলেই অপেক্ষায় রয়েছেন। 

আরও পড়ুন-ডায়েরির মধ্যেই কি লুকিয়ে সুশান্তের মৃত্যুর আসল কারণ, তদন্তে পুলিশ...

সুশান্ত শুধুমাত্র একজন ভাল অভিনেতাই ছিলেন না, এর পাশাপাশি একজন কৃতী ছাত্রও ছিলেন। বিজ্ঞানের প্রতি তার তুখড় জ্ঞান ছিল। সম্প্রতি সুশান্তের সঙ্গে কাটানো অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি স্কলার নম্রতা দত্ত। তিনি জানিয়েছেন, সুশান্তকে তিনি পদার্থবিজ্ঞানীই ভাবতেন।প্যারিস এয়ারপোর্টে সুশান্ত কোয়ান্টাম ফিজিক্স যেভাবে আমায় বুঝিয়েছিল আমি তখনই বুঝে গেছিলাম আমি একজন জিনিয়াসের সঙ্গে কথা বলছি।

আরও পড়ুন-সুশান্তের পর মানসিক অবসাদে চলে গেছেন রেশমির প্রাক্তন প্রেমিক, পুরোদমে চলছে চিকিৎসা...

২১ জানুয়ারি সুশান্তের জন্মদিন। আর ঠিক ৫ দিন পরেই ২৬ জানুয়ারী আমার জন্মদিন বলে জানিয়েছেন নম্রতা। আমরা ডিএনএ ও এক্স রে নিয়ে অনেক আলোচনা করতাম। পড়াশোনা জীবন দিল্লির কুলাচি হংসরাদ মডেল স্কুল থেকে শুরু সুশান্তের। তারপরই মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে দিল্লি টেকনোলজিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হন সুশান্ত।  সালটা ২০০৩। গোটা ভারতে এআইইইতে তে সপ্তম স্থান অধিকার করেছিল সুশান্ত সিং রাজপুত। এখানেই শেষ নয়, পদার্থবিদ্যাতেও জাতীয় অলিম্পিয়াড বিজয়ী ছিলেন সুশান্ত। এছাড়াও ইঞ্জিনিয়ারিং-এ ৭ টিরও বেশি সর্বভারতীয় পরীক্ষাতেও সফল ভাবে উত্তীর্ণ হয়েছিলেন এই সুশান্ত। কিন্তু  এত কিছু ট্যালেন্ট থাকা সত্ত্বেও থিয়েটারের প্রতি মন ছিল তার। সেই অকৃত্রিম ভালবাসা থেকেই তৃতীয় বছরে কলেজ ছেড়ে অভিনয়ে চলে আসেন সুশান্ত সিং রাজপুত। বাকিটা ইতিহাস।