লকডাউন মানেই এখন থ্রোব্যাক ট্রেন্ড। সাধারণ মানুষ থেকে সকল তারকাদের থ্রোব্যাক ছবি, মুহূর্ত বারে বারে ভেসে উঠছে নেটদুনিয়ার ফিডে। কখনও ছোটবেলার ছবি বা ভিডিও বা কখনও পুরনো স্মৃতি নিয়ে আসছে অজানা গল্প। তেমনই দীপিকা পাডুকোন শেয়ার করলেন একটি মজার পোস্ট। আমির খানেরক সঙ্গে বসে দীপিকার গোটা পরিবার। যেখানে তেরো বছরের দীপিকা আমির পাশে বসে। তাঁকে প্রায় না চেনাই যাচ্ছে না। যদিও আমির তখন সুপারস্টার। 

আরও পড়ুনঃফ্রেশ ফেস থেকে হিন্দি টেলিভিশনে জনপ্রিয়তা ত্রিধার, বঙ্গতনয়া ত্রিধার টলিউড থেকে মুম্বই পাড়ি

এর পিছনে লুকিয়ে মজার কাহিনি যা ক্যাপশনে শোনালেন দীপিকা। ২০০০ সালের অর্থাৎ আজ থেকে কুড়ি বছর আগে বছরের প্রথম দিন এই ছবিটি তোলা হয়। দীপিকা ক্যাপশনে লিখেছেন, "আমির দই ভাত খাচ্ছিলেন। আমার ভীষণ খিদে পেয়েছিস। স্বাভাবিকভাবে আমিরও আমায় জিজ্ঞেস করেননি খাওয়ার জন্য আমিও বলিনি কিছু।"ছবিটি দেখে রণবীর সিং লিখেছেন মেজর থ্রোব্যাক। দিন কতক আগে স্কুলের সময়কার একটি ছবি বারে বারে ঘউরে ফিরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার আনাচে কানাচে। 

আরও পড়ুনঃক্যাটরিনার কারণে ভিকি-হারলিনের ব্রেক আপ, নেপথ্যে করণ জোহারের 'কফি উইথ করণ'

পরণে স্কার্ট এবং টিউনিক। বা হাতে ছোট্ট একটা ট্রফি এবং ডান হাতে বেশ কয়েকটি সার্টিফিকেট নিয়ে দাঁড়িয়ে দীপিকা। বয়স তখন কতই বা হবে, খুব বেশি হলে আট দশ। দীপিকার এই ছবিতে তাঁকে চেনা বেশ মুশকিল। বয়েস কাট চুল তার মধ্যে ছোটবেলার ছবি, চেনাই দায় হয়ে উঠেছে অভিনেত্রীকে। নিজে এ ছবি শেয়ার না করলে একাধিক মানুষের পক্ষেই চেনা কঠিন হয়ে উঠত। দীপিকার হাসি দেখে অবশ্য সকলের চিনতে পারার কথা। হাসিটা তো এখনও একই রকম রয়ে গিয়েছে। 

আরও পড়ুনঃসাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

আরও পড়ুনঃকী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

আরও পড়ুনঃশরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা