ঐতিহাসিক ছবি মুঘল-ই-আজমের ৬০ বছরের পূর্তি। সপ্তাহভর তা সেলিব্রেশনের ডাক দিলেন প্রয়াত পরিচালক কে আসিফের পুত্র আকবর আসিফ। পেয়ার কিয়া তো ডারনা কেয়া গানে আজও দর্শকদের মনে সেই একই ছবি ধরা দেয়। ঝাঁ চকচকে সেট, এলিগেন্ট মধুবালা ও বাদশাহি মাহল, উপস্থাহনা থেকে শুরু করে অভিনয়, প্রতিটা ধাপেই যেন এই ছবি নিজেকে গড়ে তুলেছিল এক নয়া লুকে, যা আজও ভারতীয় ছবির ইতিহাসের পাতায় এক উজ্জ্বল নিদর্শণ হয়েই থেকে গিয়েছে, সেই ঐতিহাসিক সৃষ্টিকে এবার নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে অভিনয় প্রসায় নিলেন ছবির পরিচালক প্রয়াত কে আসিফের পুত্র। 

 

আকবর আসিফ একজন ব্যবসায়ী। কর্মসূত্রে থাকেন তিনি বিদেশে। বাবার এই সৃষ্টির ৬০ বছরে তিনি তা চলচ্চিত্র জগতের সবথেকে জনপ্রিয় লাইবেরি অস্কারে রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন। এবার এই ছবি মিলবে সেখানেই। সম্প্রতি অস্কারের সঙ্গে মুঘল-ই-আজমের ক্রিনপ্লে শেয়ার করার প্রকাশ্যে আনেন আকবর। তিনটি ভাষায় মিলবে এই ছবি, ইংরেজি, রোমান ও হিন্দি। পৃথ্বীরাজ কাপুর, দীলিপ কুমার ও মধুবালার অনবদ্য সমীকরণে তৈরি এই ছবির স্বাদ গ্রহণে এবার সামিল গোটা বিশ্ব। 

 

 

আসিফের কথায়- এই ছবির গল্প এক অনবদ্য টিমের কঠিন সাধনার ফল। যা ভারতের হিন্দি ছবির ইতিহাস রচনা করেছে। এই ছবিকে সঠিক মর্যাদা দিতেই এবার এই সিদ্ধান্ত নেওয়া। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম এই ছবি দেখবে ও অনেক কিছু জানবে আমার বিশ্বাস। ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ৫ অগাস্ট ১৯৬০ সালে। বুধবার তার ৬০ বছরের পূর্তিতে তাই আরও একবার পুরোনো স্মৃতিতে ভাসল চলচ্চিত্র জগত।