ঐশ্বর্য ও ঋত্বিক, একের পর এক হিট ছবি দেওয়া এই জুটি যোধা আকবর-এ নজর কেরেছিল সকলের। তাদের অনস্ক্রিন রোম্যান্সে মুগ্ধ হয়েছিল দর্শক। ব্যক্তিগত জীবনেও তারা খুব ভালো বন্ধু।

তবে প্রথম থেকেই সমীকরণটা এমন ছিল না। ঋত্বিক মনে করতেন – ঐশ্বর্য রাই-এর সৌন্দর্যতাই সাড়, গুণ নয়। অভিনেতা এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন- একসময় তিনি ঐশ্বর্য রাই-কে নিয়ে ভূল ধারনা পোষন করতেন। তিনি আরও জানান, অনেকসময় রূপ এতটাই বেশি হয়ে যায় যে তার পেছনে অন্যগুণগুলি চাপা পরে যায়। ঐশ্বর্য রাই-এর অবয়বে যা ফুঁটে ওঠে তিনি তার থেকে অনেক বেশিগুণী।

তবে সে ভ্রান্ত ধারনা অভিনেতা ভাঙতে সময় লাগেনি বেশি। এই জুটির হিট ছবি ধুম ২ শ্যুটিং-এর সময়ই ঐশ্বর্য রাই-এর গুণের ঝলক পরতে পরতে অনুভব করেন ঋত্বিক। তার অভিনয়, সময়জ্ঞান ও মনোসংযোগ দেখে মুগ্ধ হন অভিনেতা। ঐশ্বর্য নিজের লক্ষ্যে স্থির। ফলেই নিজের ধারনা বদলে ফেলেন তিনি।

অবশেষে তিনি জানিয়েছিলেন, ঐশ্বর্য রাই সৌন্দর্য্যের অধিকারী হওয়া সত্ত্বেও একজন ভাবসম্পন্ন অভিনেত্রী। এরপরই চলে একের পর এক তিন ছবিতে বক্স অফিস কাঁপানো রোম্যান্স। ধুম ২, যোধা আকবর ও গুজারিস। গুজারিস এই তালিকায় সবথেকে নিচে থাকলেও এই ছবিতে ঐশ্বর্য ও ঋত্বিককে অন্য লুকে পেয়েছিল দর্শক, চেনা ছক ভেঙে রোম্যান্সে ধরা পরেছিল এক ভিন্নস্বাদের গল্প।