রানি মুখোপাধ্য়ায় ও ঐশ্বর্যা রাই এর বন্ধুত্ব নিয়ে অনেক কথাই শোনা যায়। একটা সময় তারা নাকি একে অপরের সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু ছিলেন। কিন্তু সাম্প্রতিক কালে তারা একে অপরের সঙ্গে কোনও যোগাযোগই রাখেন না। যোগাযোগ রাখা তো দূর ,বলা ভাল এখন যেনও তারা একে অপরকে চেনেনও না। এমনকি এরা দুজনেই কেউই কারো বিয়েতে  নিমন্ত্রন পর্যন্ত করেননি। 

আরও পড়ুন, তার সিঙ্গল থাকার পিছনে অজয় দায়ী, কেন এ কথা বলেছিলেন টাবু

আসলে এই সম্পর্কে প্রথম চিড় ধরে, 'চলতে চলতে' ছবির সময়। 'চলতে চলতে' ছবিতে ঐশ্বর্যারই প্রথমে অভিনয় করার কথা ছিল। কিন্তু সেখানেই হয়ে যায় অদল বদল। ঐশ্বর্যা রাই এর বদলে ছবিতে নেওয়া হয়  রাণি মুখোপাধ্য়ায়কে। এই ঘটনায়  প্রিয় বন্ধু রাণির থেকে ভীষন ভাবে আঘাত পান ঐশ্বর্যা। পাশাপাশি রানির সঙ্গে একটা সময় রীতিমত ডেট করতেন অভিশেক বচ্চন। অভিশেক ও রানির বিয়ে নিয়ে পর্যন্ত কথা বচ্চন পরিবারে। কারণ রানি মুখোপাধ্য়ায়কে ব্য়ক্তিগতভাবে পছন্দ করতেন জয়া ভাদুরি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত রাণিকে বাদ দিয়ে ঐশ্বর্যাকে বিয়ে করাটা কোনওদিনই মেনে নিতে পারেননি  রানি।এরপর আদিত্য় চোপড়ার সঙ্গে বিয়ের কিছু দিনের মধ্য়েই  ঐশ্বর্যা রাই এর বাবা মারা যান। 

আরও পড়ুন, আমিরের ব্য়বহারে বাথরুমে বসে কাঁদতে হয়েছিল, ফাঁস করেন দিব্যা ভারতী

একটি সাক্ষাতকারে রানি মুখোপাধ্য়ায় জানান যে, বিয়েটা ভীষনই ব্য়ক্তিগত। সেখানে প্রিয়জনরাই  নিমন্ত্রিত হবেন। মনঃকষ্ট নিয়ে এটাও বলেন রাণি, তার কাছে এখন এটা খুব পরিষ্কার যে ঐশ্বর্যা এবং অভিশেক তার সহকর্মীই ছিলেন, বন্ধু নৈব নৈব চ।