নাগরিকত্ব নিয়ে সারা দেশ উত্তাল হচ্ছে।  এই আইনের বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেরকমই একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন পরিচালক মহেশ ভাট। অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তিনি কিছু ছবি শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।  এবং লিখেছেন, 'আমরা ভারতের জনগণ, ভারতকে একটি সার্বভৌম, সমাজতান্ত্রিক, ধর্মনিরপেক্ষ এবং গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র হিসাবে গঠনের অঙ্গীকার করেছি'। শুধু তাই নয়, কংগ্রেস নেতা শশী থারুর এবং সঞ্জয় ঝাওকে পোস্টটি ট্যাগও করেছেন।

আরও পড়ুন-অস্কারের দৌড়ে জোর ধাক্কা, ছিটকে গেল রণবীর-আলিয়ার 'গাল্লি বয়'...

মহেশ ভাটের এই ট্যুইটির পরে কন্ট্রোভার্সি কুইন কঙ্গনা রানাউতের দিদি রঙ্গোলি চান্দেল তাকে কটাক্ষ করে বলেছেন, 'ভাট সাব পৃথিবীতে প্রায় ৫০ টি মুসলিম দেশ রয়েছে। এবং পুরো গ্রহটির মধ্যে ৮০ টি খ্রিস্টান/ক্যাথলিক দেশ রয়েছে। কিন্তু পুরো বিশ্বের মধ্যে কেবল একটিই হিন্দু দেশ রয়েছে। এত ঝাল লাগছে কেন আপনার,আমরা যদি নিজেদের রক্ষা না করি তাহলে হিন্দুরা কোথায় যাবে?' অন্য একটি ট্যুইটে রঙ্গোলি লিখেছেন,  যে আমরা যখন মুসলিম লীগের অনুরোধে পাকিস্তানকে পৃথক করেছি, তখন কেন আমরা এটিকে হিন্দু জাতি বলতে লজ্জা পাব?

আরও পড়ুন-মিলল না জামিন, জেলেই রাত কাটাতে হবে বলি অভিনেত্রীকে...

এই প্রসঙ্গে সিএবি নিয়ে  অভিনেতা প্রযোজক কমল খান ট্যুইটে জানিয়েছিলেন, 'অমিত শাহ জি স্পষ্ট করে বলেছিলেন ভারতে মুসলিমদের ভয় পাওয়ার কোন দরকার নেই।  মানুষের প্রয়োজনের কথা চিন্তা করেই  এই নাগরিকত্ব বিলটি দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কিছু মানুষ কেন এটা নিয়ে এত হিংস্র হয়ে উঠছে এটা বুঝে উঠতে পারছি না।' এই বিষয়টি নিয়ে অভিনেতা ফারহান আখতারও ট্রোলড হয়েছেন। শুধু ফারহানই নন, জাভেদ আখতার, শাবানা আজমিকেও ট্যাগ করেছিলেন সেই ব্যক্তি। এবং ধর্ম নিয়েও তাকে বিদ্ধ করা হয়েছিল।