বিমানে কঙ্গনা। এরই মাঝে বড় পদক্ষেপ নিল বিএমসি। একের পর এক বুল্ডোজার হ৮াজির কঙ্গনার অফিসের সামনে। বুধবার সকালেই মান্ডি থেকে কঙ্গনা রওনা দিয়েছেন। এরই মাঝে নয়া নোটিস পড়েছিল কঙ্গনার অফিসের সামনে। একের পর এক পুলিশের গাড়িও হাজির হয়েছিল। এরপরই ভাঙার কাজ শুরু হয় কঙ্গনার মণিকর্ণিকা অফিস। রাস্তা থেকেই একের পর এক টুইট কঙ্গনার। 

 

 

কয়েকদিন আগেই মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বলার কারণে সকলের রোষের মুখে পড়তে হয়েছিল কঙ্গনাকে। এবার সেই কঙ্গনাই প্রমাণ করলেন কেন তাঁর কাছে মুম্বই পা৪কিস্তান। মুহূর্তে ভাইরাল হয় সেই ছবি। পাশাপাশি হাইকোর্ট থেকেও অর্ডার আসে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোনও ভাঙার কাজ করা যাবে না। তা অমান্য করেই ভাঙার কাজ চালু রেখেছে বিএমসি। 

 

 

ইতিমধ্যেই ভেঙে ফেলা হয়েছে অফিসের সামনের ব্যানার। ভেতরে চলছে ভাঙার কাজ। ছবি শেয়ার করে সোমানে টুইট করে চলেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। গণতন্ত্রের মৃত্যু, পোস্টে বিস্ফোরক কঙ্গনা রানাওয়াত। জানিয়ে দিলেন হাইকোর্টের নির্দেশও। অথচ বন্ধ হল না ভাঙার কাজ।