ওটিটি প্ল্যাটফর্মে সদ্য মুক্তি পেয়েছে সুজিত সরকারের ছবি 'গুলাবো সিতাবো'। ছবিতে অমিতাভ-আয়ুষ্মানের এক ভিন্ন রসায়নে মুগ্ধ একাধিক দর্শক। তবে কিছু সংখ্যক ফিল্মবাফদের তেমন মনে ধরল না চিত্রনাট্যের কিছু অংশ। তাদের অভিযোগ, এমন দুই তাবড় অভিনেতাকে নেওয়ার আগে স্টোরিলাইন ঠিক করে তৈরি করা উচিত ছিল সুজিত সরকারের। যদিও সুজিত, অমিতাভ এবং আয়ুষ্মানের ভক্তদের কাছে এই সুন্দর নিখুঁত গল্পের বুনন তারা বহুদিন পর দেখল। অমিতাভের মেকআপ থেকে শুরু করে আয়ুষ্মানের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ মনে ধরেছে দর্শকের। যদি কিছু সংখ্যক দর্শকের মতে অমিতাভের মেকআপ তেমন পছন্দ হয়নি। 

আরও পড়ুনঃবিয়ের পিঁড়িতে হানসিকা, মুখ খুললেন দক্ষিণী নায়িকা

সুজিতের সাধারণ গল্পেই অসাধারণত্ব কিছু খুঁজে পেয়েছে দর্শকরা। এরই মাঝে কমল আর খানের হঠাৎ উড়ে এসে জুড়ে বসাকে নিয়ে চলছে নানা চর্চা। আয়ুষ্মান-অমিতাভের ছবিকে খারাপ রিভিউ দিল সেল্ফ প্রক্লেমড ক্রিটিক কমল। ট্যুইট করে লিখেছেন, "গুলাবো সিতাবো দেখার পর আমি পরিচালককে কেবল একটাই প্রশ্ন করতে চাই। কী করতে চাইছিলেন আপনি। ঠিক কী বোঝাতে চাইছিলেন। দর্শকদের অবস্থা খারাপ করে ছাড়লেন। যাই হোক ধন্যবাদ ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি না করানোর জন্য।" 

আরও পড়ুনঃপুরনো অ্যালবামে অচেনা সোনম-অর্জুন, খেটে খুটে খুঁজে বের করতে হল তারকাদের

এর উত্তরে সুজিত যা লিখেছেন তাতে পরিচালকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা। তিনি লিখেছেন, "স্যার, আপনি আমার প্রতিটি ছবিকে এত ভালবাসা ও শ্রদ্ধা দেন যে আমি আনন্দে গদগদ হয়ে যাই। ছবিটি দেখার জন্য ধন্যবাদ। আগামী ছবি মুক্তি পাওয়ার পর এখানেই দেখা হবে।" সরক্যাজমের সুরে উচিত জবাব দিয়েছেন সুজিত। প্রসঙ্গত লকডাউনে ডিজিটালের দিকে ঝুঁকেছেন বিনোদন জগৎ। অনুষ্কা শর্মার ওয়েব সিরিজ পাতাল লোক ইতিমধ্যেই প্রশংসা কুড়িয়েছে। অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওতে স্ট্রিমিং হয়ে গিয়েছে সিজন ওয়ান। আগামী ওয়েব সিরিজ বুলবুলও আসতে চলেছে।