আর ছিল মাত্র দু'মাস। তারপরই ৯০ তম জন্মদিনে পা দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। তার আগেই প্রয়াত হলেন ভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের কিংবদন্তী শিল্পী উস্তাদ গুলাম মুস্তাফা খান। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৯। জানা যাচ্ছে, রবিবার নিজের বাড়িতেই হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। বার্ধক্যজনিত সামান্য সমস্যা ছিল ঠিকই। তবে কখনই তা গুরুতর ছিল না। এর কিছু সময় পরই প্রয়াত হন তিনি। 

আরও পড়ুনঃ'ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করলেই জুতো মারা হবে', 'তাণ্ডব'র জেরে BJP থেকে বাঁচতেই কি পুলিশের সুরক্ষা নিলেন

 

 

পুত্রবধূ নম্রতা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে খবরটি প্রকাশ্যে আনেন। ফেসবুকে স্টেটাসে তিনি লেখেন, "অত্যন্ত দুঃখের সহিত জানাতে হচ্ছে দেশের কিংবদন্তী সঙ্গীতশিল্পী পদ্মবিভূষণ উস্তাদ গুলাম মুস্তাফা খান সাহেব রবিবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। আমারা সকলে শোকস্তব্ধ।" এই পোস্টের পর থেকে সঙ্গীতজগতে শোকের ছায়া। লতা মঙ্গেশকর টুইটারে দুঃখপ্রকাশ করে জানিয়েছেন, "আমি এই মাত্র এই দুঃসংবাদ পেলাম। মহান শাস্ত্রীয় সঙ্গীতশিল্পী উস্তাদ গুলাম মুস্তাফা খান আর আমাদের মধ্যে নেই। উনি কেবল গায়ক হিসেবেই নয়, মানুষ হিসেবেও অসামান্য ছিলেন।"

 

 

এআর রহমানও শোকপ্রকাশ করেছেন টুইটারে। উস্তাদ আমজাদ আলি খান টুইটে দুঃখপ্রকাশ করে লিখেছেন, "উস্তাদ গুলাম মুস্তাফা খানের প্রয়াণে আমি শকাহত। দেশের অন্যতম শ্রদ্ধেয় ও বৈচত্রময় শিল্পী। ওনার সঙ্গীতের যাত্রা চিরকালের জন্য অমর হয়ে থাকবে। ওনার পরিবারের প্রতি আণার সমবেদনা রইল। ওনার আত্মার শান্তি কামনা করি।" মান্না দে, গীতা দত্ত, ওয়াহিদা রেহমান, আশা ভোঁসলে, হরিহরণ, সোনু নিগম, রশিদ খান, শান, তাঁর থেকে গানের তালিম নিয়েছিলেন।