লকডাউনে বন্ধ বিনোদন জগত। ছবির শ্যুটিং থেকে শুরু করে প্রেক্ষাগৃহের দরজা, লকডাউনের শিকার হয়েছে সিনেজগত। করোনার কোপে পড়ে, সবার আগে বন্ধ করা হয় দেশের বিভিন্ন রাজ্যের সিনেমাহলগুলি। যার ফলে লকডাউনের আগে থেকেই কোপ পড়েছিল বক্সঅফিসে। বলিউডে শেষ মুক্তি পাওয়া ছবি আংরেজি মিডিয়াম। একের পর এক ছবি মুক্তির তালিকাতে থাকলেও তা স্থগিত করে দেওয়া হয়। 

আরও পড়ুনঃ মন-মেজাজ ভাল নেই 'ঝুমা' বৌদির, প্রশ্ন জাগছে ঠাকুরপোদের মনে

এরপর কেটে যায় প্রায় দুমাস। এরই মাঝে একের পর এক ছবি মুক্তি পেয়েছে ডিজিটাল দুনিয়ায়। বেশ কিছু ওয়েব সিরিজের পাশাপাশি নতুন ছবিও ডিজিটালে জায়গা করে নিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বিস্তর ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে সিনে জগতকে। প্রেক্ষাগৃহের মালিকেরা ইতিমধ্যেই ক্ষতির মুখ দেখেছে। কর্মচারিদের মাইনে দিতে হচ্ছে লোন তুলে, সাধ্যমত পাশে দাঁড়িয়েছেন অক্ষয় কুমার। 

 

 

তবে নতুন ছবির শ্যুটিং বন্ধ, এই সময় হাতে থাকা ছবি যদি ওয়েব দুনিয়ায় মুক্তি পেয়ে যায় তবে বিনোদোন জগত থেকে লকডাউন উঠলে মানুষ প্রেক্ষাগৃহ থেকে মুখ ফেরাবে। তখন ক্ষতির পরিমাণ বাড়বে আরও, তাই সব দিক বিচার করেই এবার মাল্টিপ্লেক্স অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া থেকে প্রযোজক, পরিচালকদের উদ্দেশ্যে আর্জি জানালো, স্থগিত রাখতে হবে জিডিটালে ছবির মুক্তি। বাঘি থ্রি, আংরেজি মিডিয়াম এখনও ভালোই চলত হলে, কিন্তু তা ডিজিটালে চলে এসেছে, কিন্তু আর কোনও ছবি যাতে দর্শকদের কাছে পৌঁচ্ছে না যায়, সেই দিকে নজর দিয়েই বিবৃতি জারি করল মাল্টিপ্লেক্স অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা