ভক্ত এবার নয়া কায়দায় নেমে পরলেন সাহো ছবির প্রচারে। না, ঠিক প্রচার বলা চলে না। সাহো অভিনেতার প্রতি নিপাট প্রেমই জাহির করতে হাজির করলেন প্রভাসের প্রিয় ত্রিশটি খাবারের তালিকা। একই থালায় আদ্যপান্ত জুড়ে থাকছে যে সকল পদ তা সবই এক কথায় প্রভাসের মনপসন্দ। 

এক রেস্তোরায় এমনই থালির দেখা মিলবে টানা সেপ্টেম্বর মাস ধরে। রেস্তোরার কর্ণধার এই থালির নাম দিলেন সাহো থালি। শুধু প্রভাসের পছন্দের খাবারই নয়, এই থালি কিনলে মিলবে সাহো দেখার সুযোগ। তবে একটি থালি একা খাওয়া কোনও মতেই সম্ভব নয়। মোট পাঁচজন মিলেই এই থালি উদ্ধার করা সম্ভব। মুম্বইয়ের মহারাজা ভোগ রেস্তোরার এই নয়া উদ্যোগ দেখে বেজায় খুশ প্রভাস ভক্তরা।  এই থালি কেমন, তারই খোঁজে খাদ্য রসিকেরা ভিড় জমাচ্ছেন রেস্তোরায়। 

আরও পড়ুনঃ অক্ষয়ের দেখা পেতে এ কী করলেন ভক্ত, সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই জানালেন অভিনেতা

সম্প্রতিই মুক্তি পেয়েছে সাহো ছবি। সেই ছবি মুক্তির একদিনের মধ্যেই নেট দুনিয়ায় লিকও হয়ে যায়। একাধিক জায়গা থেকে সেই লিঙ্ক পাওয়া যায়। তবে তা কোনও অংশেই সাহো ছবির গতিকে থামিয়ে ফেলতে পারেনি। প্রথমেই এই ছবির রিভিউ খুব একটা ভালো না হলেও, বক্স অফিসে নিজের আধিপত্য জারি রেখেছেন সাহো। তবে বাহুবলীর কাছে অবশেষে হার মানতে হল তাঁকে। 

আরও পড়ুনঃ বিপদের মুখে আরে বনাঞ্চল, প্রতিবাদে রাস্তায় নামলেন শ্রদ্ধা কাপুর
 বক্স অফিসে পা রাখা মাত্রই সাহোর বাজিমাত। প্রথম দিনেই চলতি বছরের তৃতীয় বড় ওপেনিং করল এই ছবি বলিউডে। সাহোর হিন্দি ছবি শুক্রবারই ২৪ কোটি টাকা আয় করে। এর আগে ভারত ও মিশন মঙ্গল ছিল প্রথম দুয়ের তালিকা। যদিও সব ভাষা ও স্ক্রিন অনুযায়ী সাহো ইতিমধ্যেই পার করেছে প্রায় ২০০ কোটি টাকা। যদিও এই ছবি মুক্তির পর সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব একটা সাড়া ফেলা প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। 

কিন্তু দর্শকদের মনে এই ছবি বহুদিন ধরেই জায়গা করে নিয়েছিল, তা প্রথম দুদিনের বক্স অফিসের আয় দেখলেই বোঝা যায়। এখানেই শেষ নয়, সঙ্গে রজনীকান্তকেও পেছনে ফেলে দিল এই ছবি। তবে এই অবস্থায় সাহোকে ঘিরে এই নয়া জল্পনায় তা ছবির গতিকে কতটা কমাতে পারবে বলা দায়, কারণ ইতিমধ্যেই সাহো ২০০ কোটির ক্লাবে নাম লিখিয়েছে।