কর্মসূত্রে মুম্বই যাওয়ার স্বপ্ন অনেকেই দেখেন। কিন্তু সেখানে যে সকলেরই বাড়ি থাকবে এমনটা খুবই কম দেখা যায়। অধিকাংশ সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অভিনয় করার স্বপ্ন বুকে নিয়ে ছুটে আসেন বলিউডে। এখানে এসে সাহারা কেবল একটাই। পরিচিত বন্ধু, নয়তো কাজের সূত্রে বিশ্বাসভাজন কেউ। তেমনটাই ঘটেছিল নলিনী নেগির সঙ্গে। তিনি ও তাঁর বন্ধু একই সঙ্গে থাকতেন। কিন্তু সম্প্রতি নতুন বাড়িতে চলে যায় নলিনী। ফলে বিপাকে পড়েন তাঁর বন্ধু। সমস্যার সূত্রপাত সেখান থেকেই।

আরও পড়ুনঃ মুক্তির আগেই প্রেডিকশন! তিনশো কোটির ক্লাবে নাম লেখাতে পারে সাহো

বন্ধু নিরুপায় হয়ে কয়েকদিনের জন্য নলিনীর কাছে থাকতে চান। তিনিও রাজি হয়ে যান কারণ তাঁর বাড়িতে একটা ঘর ছিল ফাঁকা। কিন্তু সেখানে আসার পর আর নড়ার নাম নেননি তার বন্ধু। পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন নলিনী। স্থানীয় পুলিশকে জানিয়েছিলেন,- তিনি ভেবেছিলেন একটা বাড়ির সন্ধানে রয়েছে হয়তো তাঁর বন্ধু। কিন্তু তেমনটা না ঘটায় তিনি জানিয়ে দেন তাঁর পরিবারের লোকজনেরা আসবেন, সেখান থেকেই শুরু হয় বিপত্তি। 

আরও পড়ুনঃ খানের সিদ্ধান্তে নাজেহাল আলিয়া! হচ্ছে না ইনশাল্লাহ, বিপাকে আলিয়া

রাতারাতি সেই বন্ধু তাঁর মাকে নিয়ে চলে আসে। তাঁরা দুজনেই থাকতে শুরু করেন। এরপর একদিন সন্ধ্যের সময় অযথা তাঁর বন্ধু বচসা শুরু করে দেয়। সঙ্গে যোগ দেন তাঁর মা। দুজনেই তাঁকে গালিগালাজ করতে থাকেন। শুধু তাই নয় কিছুক্ষণের মধ্যেই তাঁর মা একটা কাচ নিয়ে তাঁকে আঘাত করেন। নলিনী নেগির মতে তাঁরা চেয়েছিলেন নলিনীর মুখ নষ্ট করে দিতে চেয়েছিলেন তাঁরা।

ঘটনার পূর্ণ বিবরণ দিয়ে থানায় অভিযোগও জানান তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই খবরও প্রকাশ্যে নিয়ে এসেছিলেন তিনি।  'দিয়া অউর বাতি হাম', 'নামকরণ', 'ডোলি আরমানো কি', প্রভৃতি সিরিয়ালে তাঁকে দেখা গিয়েছে। বর্তমানে বিটাউনের কাজ নিয়ে ব্যস্ত তিনি।