বলি অভিনেতার পরিবারেই যৌন নিগ্রহের অভিযোগ। এই নিয়ে উত্তাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। একের পর এক অভিযোগ উঠেই চলেছে বলি অভিনেতা নওয়াজের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি সেক্রেড গেমস অভিনেতা নওয়াজউদ্দিনের ভাই মিনাজউদ্দিন সিদ্দিকির বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের আবেদন করেছেন তাদেরই ভাইজি। পরিবারের সদস্যদের জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি।  এমনকী জ্যেঠু নওয়াজকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। নওয়াজও নাকি তার ভাইয়ের কথা জানার পর বিশ্বাস করেননি। সম্প্রতি দিল্লির জামিয়া থানায় নওয়াজের ভাইয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ দায়ের করেছেন তার ভাইজি। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে  নওয়াজের ভাইজি জানিয়েছেন, বয়স তখন সবেমাত্র ৯ বছর। তার অভিযোগ, 'আমার উপর প্রচুর অত্যাচার করা হয়েছে। তখন ছোট ছিলাম বলে বুঝতাম না। ভাবতাম উনি আমার কাকা। কিন্তু বড় হয়ে বুঝতে পারি এটা অন্য ধরনের স্পর্শ ছিল। তারপরেও ১৩ বছর বয়সেও কাকার হাতে নির্যাতিত হয়েছি।

আরও পড়ুন-'ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে মুখ দেখানো কবে বন্ধ করবেন সেলিব্রিটিরা', প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন অভয়...

সূত্র থেকে জানা গেছে, পরিবারের সকলে মিলে বেড়াতে গিয়েই যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছিলেন তিনি। ঘরের মধ্যে শুয়ে থাকাকালীন মিনাজ তার ভাইজিকে ছুঁয়েছিল। ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত তা সহ্য করেছেন  তারপর বিয়ে হয়ে যায় অভিযোগকারিনির। নওয়াজের ভাইজির অভিযোগ থেকে আরও জানা গেছে,  একদিন মিনাজ ভাইজির বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে সঙ্গম করতে চায় । সঙ্গমে বাধা দেওয়ায় নিজের বেল্ট খুলেই বেদম মারেন ভাইজিকে। তারপর সেখান থেকে তার প্রেমিক তাকে উদ্ধার করে। সে না থাকলে হয়তো সেদিন আত্মহত্যায় করতে হতো তাকে, জানিয়েছেন নওয়াজের ভাইজি। তারপর পালিয়ে গিয়ে দুজনে বিয়ে সারেন।

আরও পড়ুন-পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে কলম ধরলেন দেব, ক্ষোভ উগরে দিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়...

নওয়াজের ভাইয়ের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে।  ভাইয়ের  বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হেনস্তা নিয়ে এবার মুখ খুললেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। সম্প্রতি এক সংবাদসংস্থার পক্ষ থেকে নওয়াজের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানিয়েছেন, আপনারা আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন, তার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। কিন্তু ভাইয়ের যৌন হেনস্তা নিয়ে তিনি এ বিষয়ে কোনও কথা বলবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন। অন্যদিকে নওয়াজের আরেক ভাই সামাজ জানিয়েছেন, যৌন হেনস্তার অভিযোগের মামলা গত ২ বছর ধরেই চলছে। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে সামনে তা নতুন করে উঠে এসেছে।

লকডাউনের মধ্যে বিবাহবিচ্ছেদের খবর হৈচৈ শুরু হয়েছে বি-টাউনে। দীর্ঘদিন ধরেই স্ত্রী আলিয়ার সঙ্গে অশান্তি চলছিল বলি অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির। তিক্ততা এতটাই চরমে পৌঁছেছে যে কোনওমতেই এই সম্পর্ক আর টিকিয়ে রাখতে চানা না নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া।দীর্ঘ ১১ বছরের বিবাহিত জীবনে ভাঙন ধরতে চলেছে বলিউড অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির ।  এরপর থেকেই বলি অভিনেতার ব্যক্তিগত জীবন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। সূত্র থেকে জানা গেছে,নওয়াজের ভাইয়ের উপরও একাধিক অভিযোগ এনেছেন নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া। ইতিমধ্যেই নওয়াজের পরিবারের বিরুদ্ধে ৭টি মামলা দায়ের করেছেন তিনি। তাদের বিচ্ছেদের পিছনেও অনেকটা দায়ী রয়েছে শামস। এদিকে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসা মাত্রই মুখ খুলেছেন নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া । তিনি জানিয়েছেন, 'এটা তো সবে শুরু। সমর্থন করার জন্য ভগবানকে অনেক ধন্যবাদ। আরও অনেক কিছু প্রকাশ্যে আসবে। সবাই হতবাকও হবে। কারণ আমি একাই নই নীরবে সহ্য করব। সত্যিকে তারা কত টাকা দিয়ে কিনবে আর কাদেরকেই বা তারা ঘুষ দেবে, এখন সেটাই দেখার।'