বিদ্যের দৌর যতই হোক না কেন, ইংরেজিতে ভয় কিছুতেই কাটিয়ে উঠতে পারেন না অনেকেই। ফলে যোগ্যতা থাকার সত্ত্বেও যোগ্য চাকরি ও পারিশ্রমিকের অভাব দেখা যায় তাদের জীবনে। পিছিয়ে পরার এই রীতিকেই এবার বদলে ফেলর কথা বললেন হৃত্বিক রোশন তার ছবির মাধ্যমে। সেই ছবিরই নতুন গান প্রকাশ্যে এল। সেখানেই হৃত্বিক সুন্দরভাবে বুঝিয়ে দিলেন কেবলমাত্র ইংরেজি না জানার জন্যই যে কত ছেলে মেয়ের জীবনে কত দরজা বন্ধ হয়ে যায় তার কোনও হদিশ নেই। 

ছবিতে শিক্ষকের ভুমিকায় অভিনয় করেছেন সুপারস্টার। গানের শুরুতেই দেখা যায়, তার ছাত্রছাত্রীরা এসে অভিযোগ করছে ইংরেজি না জানার ফলে সমস্যা হওয়ার কথা। প্রতিবাদে হৃত্বিক সিদ্ধান্ত নেয়, পরের দিন হোলিতেই সকলের সামনে ইংরেজিতে গান গেয়ে দেখাবে তার এই সেরা ৩০ জন ছাত্রছাত্রী। নাচে গানের তালে শুরু হয় এই অনুষ্ঠানে, যেখানে 'নো' শব্দটি দয়েই গান শুরু করেন তারা। সেখান থেকে এই গান নয়া মোড় নেয়। গানের শেষে সকলেই তার কাছে প্রশ্ন রাখে কেন ইংরেজি! উত্তরে হৃত্বিক জানান, ইংরেজির ভয় কাটানোর জন্য নেওয়া এই পদক্ষেপ।

সুপার ৩০ ছবির কাজ শেষ। সম্প্রতিই তা মুক্তির অপেক্ষায়। এই সময় একের পর এক গান ভক্তদের উদ্দেশ্য নিয়ে আসছেন প্রযোজক সংস্থা। বসন্তী নো ডান্স গানের কোরিওগ্রাফি করেছেন গনেশ আচারিয়া ও গানটি গেয়েছেন প্রেম আরেনি, জনার্দন ধাত্রাক, দিব্যা কুমার এবং চৈতালি পরমার।