বর্ষীয়ান অভিনেত্রী রেখার বাংলো সি স্প্রিং-এ করোনার থাবা। অভিনেত্রীর বাড়ির দু'জনের নিরাপত্তারক্ষীর মধ্যে একজনের করোনা টেস্ট পজিটিভ এসেছে। তৎক্ষণাৎ সিল করে দেওয়া হয়েছে তাঁর বাংলো। বিএমসির তরফে সেই এলাকাটিকে কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষিত করা হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হওয়া সেই নিরাপত্তারক্ষী এখন বিকেসিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিএমসি ইতিমধ্যেই বাংলোর গেটের সামনে নোটিশ সহ বাড়িটি স্যানিটাইজ করিয়েছে। প্রসঙ্গত, অমিতাভ বচ্চন এবং অভিষেক বচ্চনের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার খবরে শোকাহত বলিউড সহ অনেকেই।

আরও পড়ুনঃকরোনায় আক্রান্ত অমিতাভ বচ্চন, চিকিৎসাধীন নানাবতী হাসপাতালে

একে একে বচ্চন পরিবারের সদস্যদের উপর থাবা বসিয়ে চলেছে করোনা। অমিতাভ বচ্চনের পর এবার অভিষেক বচ্চন টুইট করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। বাবার সঙ্গে নানাবতী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অভিষেক। করোনার মৃদু উপসর্গ পাওয়া গিয়েছে দু'জনের শরীরে, ট্যুইটে জানিয়েছেন অভিষেক। শনিবার বিকেলে শারীরিক অসুস্থতার দরুণ নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। সেখানেই পরীক্ষা হতেই ফলাফলে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে তাঁর। 

আরও পড়ুনঃঅমিতাভ বচ্চন করোনা পজিটিভ, ট্যুইটারে শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

 

অমিতাভ টুইটে লেখেন, "আমি করোনায় আক্রান্ত। হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছি। হাসপাতালের পক্ষে থেকে কর্তৃপক্ষকে সমস্ত খবরাখবর দেওয়া হচ্ছে। পরিবারের বাকি সদস্য এবং পরিচারক-পরিচারিকাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষায় রয়েছে তারা। গত দশ দিনে যারা আমার সংস্পর্শে এসেছেন তাঁদের অনুরোধ করছি নিজেদের পরীক্ষা করিয়ে নিন।" কণিকা কাপুরের পর মোরানি পরিবার আক্রান্ত হয় করোনায়। গত মাসে আমির খানের বাড়ির সাতজন পরিচারক করোনায় আক্রান্ত হয়। যদিও অন্যান্য কর্মী এবং তাঁর করোনা টেস্ট নেগেটিভ আসে। অন্যদিকে বনি কাপুর এবং করণ জোহারের বাড়িতেও পরিচারকরা করোনায় আক্রান্ত হয়।