শেষ ছবির অর্ধেক শ্যুটিং করেই চলে গেলেন ঋষি কাপুর। শর্মাজি নমকিন ছবিটির অর্ধেকের বেশি শ্যুট করে ফেলেছিলেন। শরীরে অবস্থা বুঝে শ্যুটে যেতেন তিনি। তার মাঝেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে চলে গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। ছবিতে তিনিই ছিলেন প্রধান চরিত্রে। তাহলে ছবির একাংশের ছবির শ্যুটিং হবে কীকরে। চিন্তার ভাঁজ পড়েছে পরিচালক হানি ত্রিহানের কপালে।

আরও পড়ুনঃবেতাল পাহাড়ে হানা দিচ্ছে ব্রিটিশ ভূতের দল, শাহরুখের হরর-থ্রিলারে মুক্তি পেল হার কাঁপানো ট্রেলার

আধুনিক ভিএফএক্স এবং বিশেষ টেকনিক দিয়ে শ্যুট করা হবে ছবির একাংশ। ছবির প্রযোজক হানি ত্রিহান জানিয়েছেন পরিচালক হিতেশ ভাটিয়ার উপর বেশ চাপ। তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আধুনিক ইএফএক্সের ব্যবহার করে এবং বিশেষ টেকনিক নিয়েই শ্যুট করবেন বাকি ছবিটি।

আরও পড়ুনঃসলমনের সঙ্গে ইউলিয়ার বিয়ে, কবে-কখন বিস্তারিত জবাব ইউলিয়ার

প্রসঙ্গত ২০১৮ সালে লিউকেমিয়ায় আক্রান্ত হন ঋষি কাপুর। নিউ ইয়র্কে চলেছিল তাঁর চিকিৎসা। সেখানে একটি সফল অস্ত্রপচারের পর খানিক সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। ২০১৯ সালে দেশে ফিরে আসেন তিনি। এ বছর এপ্রিল মাসের ২৯ তারিখ স্যার এইচ এন রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন হাসপাতালে কোলন ইনফেকশন নিয়ে ভরতি হন ঋষি কাপুর। দ্রুত অবস্থার অবনতি হওয়ার পর হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অভিনেতা।   

আরও পড়ুনঃশরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা

আরও পড়ুনঃকী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

আরও পড়ুনঃসাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল