২০১৯ থেকেই রামায়ণ ছবি নিয়ে তোলপাড় হচ্ছে বলিউড। নতুন ছবি নিয়ে একের এক নয়া তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে সর্বত্র। রামায়ণের গল্প অবলম্বণে তৈরি আদিপুরুষ ছবিতে দেখা যাবে সইফ আলি খানকে। সেই ছবি নিয়ে মুখ খুলতেই বিপাকে পড়লেন এবার সইফ আলি খান। গল্পের ধাঁচ ঠিক কেমন, প্রশ্নের উত্তরে সাফ জানিয়েছিলেন তিনি রাবণের মানবিক দিককেই ফুঁটিয়ে তোলা হবে এই ছবিতে। এতেই গর্জে ওঠে নেটিজেন সহ রাজনৈতিক নেতারা। 

 

সীতা হরণের কোনও জাস্টিফিকেশন হতে পারে না, এমনই দাবিতে একের পর এক পোস্ট ছড়িয়ে পড়তে থাকে নেট দুনিয়ায়। এরপ পর থেকেই কোণ ঠাঁসা হতে থাকেন সইফ আলি খান। এরপরই বিতর্ক এড়াতে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ খোলেন সইফ আলি খান। সাফ ক্ষমা চেয়ে নিলেন সইফ। রামায়ণের গল্প অবলম্বণে তৈরি ছবিতে মুখ্য ভুমিকাতে দেখা যাবে প্রভাসকে। সীতার ভুমিকাতে থাকছেন কৃতি স্যানন। আর সেখানেই রাবণের পাঠ করতে দেখা যাবে সই আলি খানকে। 

 

 

 

ছবি নিয়ে সইফকে প্রশ্ন করতেই এমন উত্তর দিয়েছিলেন তিনি, যাতে রাবণের সীতা হরণের মানবিক দিকটি তুলে ধরার প্রসঙ্গ উঠে আসে। এরপর বিজেপি নেতা রাম কদম এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। ক্ষোভ উগরে দিয়ে সইফের উদ্দেশ্যে লেখেন তিনি তানাজি মর্যাদা পেয়েছিল, কারণ সেখানে মারাঠা ধর্মে কোনও আঁচ লাগেনি। কিন্তু সীতা হরণ নিয়ে এমন গল্প তুলে ধরলে তা হিন্দু ধর্মের মানকে ক্ষুন্ন করবে এবং তা কোনওভাবেই কাম্য নয়। এরপরই সইফ জানান তিনি ঠিক তেমনটা বলতে চাননি। কিন্তু তাতে যদি কোনও ধর্ম বা ব্যক্তির মনে আঘাত পৌঁচ্ছায় তবে তিনি  ক্ষমা প্রার্থী।