বিগ বস ১৪-তে ক্রমশ বাড়ছে হিংসা, ঘৃণা, ঝগড়া। সিদ্ধার্থ শুক্লা, গওহর খান, হিনা খান বিগ বস হাউজের সিনিয়র সেজে আসার সময় সকলের অনুমান ছিল, অতিরিক্ত সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। তবে সমস্যা বাড়ল বিকাশ গুপ্তা, আরশি খান, রাখি সাওয়ান্ত, রাহুল মহাজন আসার পর। তবে তাঁরা যাওয়ার পর যেন হাউজমেটসদের মধ্যে সমস্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। নতুন সদস্যরা এসে কোনওভাবেই পুরনো সদস্যদের সঙ্গে মিলিমিশে থাকতে পারছে না। 

এরই মধ্যে পরিস্থিতি খানিক গম্ভীর হল রাখি সাওয়ান্ত এবং নিক্কি তাম্বোলির জন্য। রাখি সাওয়ান্তের বিছানা পরিষ্কার করার দায়িত্ব ছিল নিক্কির। দু'জনের মধ্যে বাড়তে থাকা সমস্যার জেরে তাঁরা একে অপরের সঙ্গে মিলে মিশে থাকতে ইচ্ছুক নয়। রাখি বিছানা পরিষ্কার তিনি করেননি, বিষয়টি সলমন খানের কান অবধি পৌঁছতে বেশি সময় স্বাভাবিকভাবেই লাগেনি। কাজটি কেন হয়নি, সলমন প্রশ্ন করেন নিক্কিকে। 

আরও পড়ুনঃসৃজিতের কোলে আয়রা, মিথিলার ঘনিষ্ঠ আলিঙ্গন, 'মুখার্জি' পরিবারের সিকিম ডায়রিজে মুগ্ধ প্রসেনজিৎ

 

 

এজাজ উত্তর দেয়, নিক্কি সরাসরি না করে দিয়েছিলেন রাখির বিছানা পরিষ্কার করতে। সলমন নিজের বিগ বসের মঞ্চ ছেড়ে সোজা চলে আসেন বিগ বস হাউজের মধ্যে। মাস্ক পরে তিনি বিগ বস হাউজের বেডরুমের জায়গাটিতে চলে যান। সেখানে তিনি কেবল একাই ছিলেন। বেডরুম এলাকার দরজাও লকড ছিল যাতে বাড়ির সদস্যরা সেখানে প্রবেশ না করতে পারে। সলমন কোনও ক্ষোভ প্রকাশ না করেই, রাখির বিছানা পরিষ্কার করে দিলেন। সকলের বারণ করার সত্ত্বেও তিনি করতে থাকেন। শেষে বলেন কোনও কাজই ছোট নয়। যার জেরে নিক্কি, রাখি সহ সকলেরই মাথা হেঁট হয়ে যায়। বিগ বস-এ নিত্যদিন নতুন নতুন বিতর্ক। সেই কারণে দর্শকের এই অনুষ্ঠান নিয়ে উৎসাহও অনেক বেশি।