সোশ্যাল মিডিয়ায় এবার নতুন ট্রেন্ড গড়ল অ্যাভেঞ্জার। ছবি মুক্তি পাওয়া মাত্রই অ্যাভেঞ্জার ভক্তের মুখে মুখে ফিরছে একটা সংলাপ আই লাভ ইউ ৩০০০। প্রকাশ্যে সবাই তাদের প্রিয়জনদের উদ্যেশ্য লিখে ফেলছেন এই তিনটি শব্দ। শুক্রবার ছবি মুক্ত পাওয়া মাত্রই টুইট রিটুইটে ভরে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া। ট্রেণ্ড ফলো করে এই নতুন সংলাপের জোয়ারে গা ভাসালেন আট থেকে আশি। বাদ পরল না সেলেব সেলও।   খোদ শাহরুখ কন্যা সুহানা নিজের সোশ্যাল পেজের মাধ্যমে নাম লেখালেন এই তালিকায়। নিজের দুই বান্ধবীর সঙ্গে ছবি দিয়ে লিখে ফেললেন আই লাভ ইউ ৩০০০।

বিশ্বে মোটের ওপর অর্ধেক শতাংশ দর্শকের নজরেই এখন এই নতুন সংলাপ। যা ছবিতে টনি স্টার্ক ও তার কন্যা মর্গানের মধ্যে স্নেহ ও ভালোবাসা বিনিয়মের সময় ব্যবহার করা হয়েছিল। অ্যাভেঞ্জার এণ্ডগেম-এর এই বিখ্যাত উক্তি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয় প্রকাশ্যে আসার পরই। অ্যাভেঞ্জার ভক্তরা এই উক্তিটি নানানভাবে তুলেধরছেন নিজেদের সোশ্যাল পেজে।

ইতিহাস গড়া এই সংলাপের বিশেষত্ব, ছাপিয়ে যাওয়া টন-এর ভালোবাসা। সহজ ভাসায় বলতে গেলে আই লাভ ইউ টন, যার অর্থ ছিল ২০০০ পাউন্ড, সেই সংখ্যাকে ছাপিয়ে বাজারে এল নতুন বাক্য। আই লাভ ইউ ৩০০০, যা বলার অর্থ বক্তার ভালোবাসার পরিমাণ টন-এর থেকেও বেশি। ফলেই মানুষের মধ্যে সাড়া ফেলে এই বাক্য এখন মুখে মুখে ফিরছে সমাজের নানান স্তরে। যা ছবিটিকে এক এক্সট্রা মাইলেজ দিয়েছে বলেও দাবী করা যায়।

যদিও অ্যাভেঞ্জার-এর মাইলেজ নিয়ে সংশয়ের কোনও প্রশ্নই থাকে না। বিশ্ব জুড়ে ছবি মুক্তি পাওয়ার প্রথম পাঁচ দিনের মাথায় আমেরিকার ডলারে বক্সঅফিস প্রাপ্তি ঘটে ১১ বিলিয়ন। যা অ্যাভেঞ্জার সিরিজের ক্ষেত্রেও এক নতুন রেকর্ড।