সুশান্ত সিং রাজপুত প্রতিটা পদক্ষেপে তাঁর মায়ের অভাব অনুভব করতেন। কখনও চোখের জলে তা সকলের সামনে তুলে ধরতেন, কখনও আবার সকলের অলক্ষ্যে গুমরে মরতেন। কিন্তু অভিনেতা প্রতিটা পদে জড়িয়ে থাকা মায়ের স্মৃতি থেকে  কোনও মতেই বেরিয়ে আসতে ছিলেন নারাজ। মাকে হারিয়ে ভেঙে পড়েছিলেন সুশান্ত। তবে থেকেই কী জীবনের স্বাভাবিক ছন্দের পতন ঘটেছিল! প্রশ্ন জাগায় তাঁর মাকে লেখা আবেগঘন চিঠি। 

আরও পড়ুনঃ 'কেন এই পথে সুশান্ত', পুলিশি জেরার মুখে এবার কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ

সুশান্তের লেখা তাঁর মৃত্যুর পর সামনে আনেন তাঁর বোন। সেই লেখা মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে নেট পাড়ায়। তারই মধ্যে একটি ছিল মাকে লেখা চিঠি। যেখানে সুশান্ত লিখেছিলেন, তুমি কথা দিয়েছিলেন সারা জীবন সঙ্গে থাকবে, আমিও কথা দিয়েছিলেন সারা জীভন খুশিতে থাকব... কিন্তু আমরা দুজনেই ছিলাম ভুম। যার অর্থ দাঁড়ায় মায়ের মৃত্যুর সঙ্গেই সুশান্তের জীবনের আনন্দ বিদায় নিয়েছিল। তখন থেকে শুরু নতুন যুদ্ধ। 

 

 

তিলে তিলে নিজের স্বপ্ন ছুঁতে চলেছিলেন সুশান্ত। কেরিয়ারের শীর্ষে এসে আবারও ছন্দপতন। সব শেষ করে দিলেন এক পলকে। তাঁর মৃত্যু ঘিরে এখন হাজার হাজার প্রশ্ন। অবসাদের শিকার সুশান্তের পাশে শেষ সময় ছিলেন না কেউই। পাশে থেকে সরে গিয়েছিল সাধের বলিউডও, ভক্তদের স্মৃতিতে এখন শুধুই সুশান্তের একের পর এক অনবদ্য ছবি, সুশান্তের লেখা এই চিঠি এখন নেট দুনিয়ায় সকলের হাতে হাতে ছড়িয়ে পড়েছে। তাঁর অবসাদের কারণ কী, জানার অপেক্ষায় এখন সকলেই।