১০ মে, আন্তর্জাতিক মাতৃ দিবস। মাকে এদিন খানিকটা স্পেশাল অনুভব করানো, সারা জীবন যাঁর পরশে বেড়ে ওঠা, বেঁচে থাকা, সেই মা-কে ঘিরে এই বিশেষ দিনে অনেক পরিকল্পনা। বাস্তবের মাটি থেকে ছবির পর্দায়, মায়ের ছোঁয়ায় বদলে যায় চিত্রনাট্যের মাধুর্যতা। বলিউডে এমনই কিছু গান, যা মা-কে উৎসর্গ করেই মানুষের দর্শক-শ্রোতার মনে পাকাপাকি জায়গা করে নিয়েছে। 

আরও পড়ুনঃ শেষ ছবির অর্ধেক শ্যুটিং করেই চলে গেলেন ঋষি কাপুর, বাকি অংশের শ্যুট নিয়ে চিন্তার ভাঁজ পরিচালকের কপালে

মেরি মাঃ তারে জামিন পার ছবির গান মেরি মা। গানটি গেয়েছে শঙ্কর মহাদেবন। গানে মিউজিক দিয়েছেন শঙ্কর ইসান লয়। পর্দায় থাকা ছোট্ট ইশানের তাঁর মায়ের প্রতি না বলা কথাগুলো লুকিয়ে রয়েছে গানের প্রতিটা অনুচ্ছেদে। যা ছবির এক বিশেষ আকর্ষণ হয়ে দাঁড়ায়। 

লুকা ছুপিঃ রঙদে বসন্তি ছবির গান লুকা ছুপি। গানটি গেয়েছেন লতা মঙ্গেশকর। গানের সুর দিয়েছেন এ আর রহমান। ছবিতে অভিনয়ের ছিলেন আমির খান, সোহা আলি খান। মাধবনের মৃত্যুতে এই গান ছবিতে ব্যবহূত হয়েছিল। 

অ্যাসি কিউ মাঃ নিরজা ছবির গান অ্যাসি কিউ মা। এই ছবিতে মুখ্য ভুমিকাতে অভিনয় করেছিলেন সোনম কাপুর। গানটি গেয়েছিলেন সুনিধি চৌহান। গানটি পরিচালনা করেছিলেন বিশাল খুরানা। ছোটবেলার স্মৃতি মনে করার সময় গানটি ব্যবহার হয়েছিল ছবিতে। 

তু কিতনি আচ্ছি হ্যায়ঃ ছবির নাম রাজা ওউর রনক। তু কিতনি আচ্ছি হ্যায় গানটি গেয়েছেন লতা মঙ্গেশকর। গানের মিউজিক দিয়েছেন লক্ষ্মীকান্ত পেয়ারেলাল। ছবিতে মুখ্য ভুমিকাতে অভিনয় করেছিলেন দিলীপ কুমার। 

খুসিয়ো কা দিন আয়াঃ ছবির নাম বেটা। গানটি গেয়েছেন অনুরাধা পাড়োয়াল। গানের মিউজিক দিয়েছেন আনন্দ মিলিন্দ। ছবিটা মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯২ সালে। ছবিতে মুখ্য ভুমিকাতে অভিনয় করেছিলেন অনিল কাপুর। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা