২০২০ সালটাই অভিশপ্ত। এ কথা যেন বারে বারে প্রমাণ করে দিচ্ছে একের পর এক ঘটনা। কোটি কোটি মানুষের মৃত্যু হল করোনা ভাইরাসে। তারপরই শুরু হল বিনোদন জগতে নক্ষত্রপতন। সুশান্ত সিং রাজপুত, ইরফান খান, ঋষি কাপুর, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, মনু মুখোপাধ্যায় একে একে তারকার প্রয়াণে শোকস্তব্ধ হয়ে গিয়েছে চারিদিক। ফের প্রয়াত হলেন এক বর্ষীয়ান অভিনেতা। চলে গেলেন সনামধন্য মারাঠি অভিনেতা রবি পটবর্ধন। 

ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয়েছে অভিনেতার। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৮৪। তড়িঘড়ি তাঁকে থানের জুপিটার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় শ্বাসকষ্টের জেরে। শনিবার রাত ৯-৯:৩০ নাগাদ শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন অভিনেতা। আধঘন্টার মধ্যে অবস্থার সাংঘাতিক অবনতি হয়েছিল তাঁর। রবি পটবর্ধনের ছেলে নিরঞ্জন পটবর্ধন জানান, রবিবার সকালে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। 

 

মারাঠি বিনোদন জগতে কাজ করার পাশাপাশি বলিউডেও কাজ করেছিলেন তিনি। তেজাব এবং অঙ্কুশের মত ছবিতে খনিকের চরিত্রও নিজের অভিনয় দক্ষতায় ফুটিয়ে তোলার ভক্ষতা ছিল তাঁর। প্রায় চার দশক ধরে অভিনয় করেছিলেন তিনি। প্রায় দু'শো ছবিতে কাজ করেছিলেন তিনি। হিন্দি ছবি যশবন্ত (১৯৯৭) র সহ মারাঠিতে আশা আসভ্যা সুন (১৯৮১), ঝাঞ্জর (১৯৮৭), জ্যোতিবা ফুলে-তে কাজ করেছিলেন রবি পটবর্ধন।