করোনা রুখতে সারা দেশ জুড়ে লকডাউন চলছে। আর এই লকডাউনের মধ্যে সলমনের জীবনে পড়েছিল শোকের ছায়া।  লকডাউনের মধ্যেই মৃত্যু হয়েছিল ভাইপো আবদুল্লা খানের। সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, ফুসফুসের সংক্রমণের কারণে মুম্বইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন আবদুল্লা। তারপর থেকে শরীরে দেখা দেয় নানা সমস্যা। ফুসফুসের সংক্রমণ বেড়ে গিয়ে শারীরিক অবনতি হতে থাকে। অবশেষে ৩১ মার্চ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছিলেন আবদুল্লা।

আরও পড়ুন-টলি থেকে বলি, অমিতাভের উদ্যোগে সাড়া দিয়ে একজোট তারকারা...

মাত্র ৩৮ বছর বয়সে তার মৃত্যু যেন মেনে নিতে পারেননি কেউই। মৃত্যুর একসপ্তাহ কাটতে না কাটতেই প্রকাশ্যে এসেছে এক নতুন সত্য। সম্প্রতি একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, সলমনের ভাইপো আবদুল্লা প্রায় ৩ বছর ধরে মিস ইউনিভার্স খ্যাত অমৃতা থাপরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন। তবে ব্যক্তিগত কারণের জন্য অমৃতা এই সম্পর্কে থেকে বেরিয়ে যান।

আরও পড়ুন-বিনোদনের সেরা ১০ খবর, যা আপনাকে দেবে টলিডউ টু বলিউড আপডেট...

কিন্তু কী কারণে তাদের সম্পর্ক বিচ্ছেদ হয়েছিল। সেই কারণ অবশ্য জানা যায়নি। তবে ঘনিষ্ঠ এক সূত্র থেকে জানা গেছে,  মৃত্যুর ঠিক আগে নাকি আবদুল্লা শেষবারের মতোন ফোন করেছিলেন প্রেমিকা অমৃতাকে। কিন্তু অমৃতা সেইদিনই অমৃতার ফোন ধরেনি। সম্প্রতি অমৃতা জানিয়েছেন, 'তিনি ভেবেছিলেন জীবনে ফিরে আসার জন্যই হয়তো ফোন করেছিলেন আবদুল্লা। কেন সেদিন ফোনটা ধরলেন না তিনি। এখনও আপসোস হচ্ছে। মনে মনে ভাবছেন শেষবার তো একটু কথা বলতে পারতেন'। 

 

আরও পড়ুন-করোনাভাইরাস LIVE, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত ৪০০, বিশ্বে মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেল ৭৫ হাজারে...

আরও পড়ুন-আইসিইউতে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী, করোনার সঙ্গে জীবন-মৃত্যুর পাঞ্জা...

আরও পড়ুন-করোনার প্রভাবে এতটাই পরিবর্তন পাকিস্তানের, ভারতীয় বিমানের চালকদের প্রশংসা...