'দ্য গ্রেট গুয়াহাটি ম্যারাথন ২০২০'র উদ্বোধনে গিয়ে বিপাকে পড়লেন বলিউড অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম। গুয়াহাটি বিমানবন্দর থেকে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিও নিয়ে তোলপাড় হয়ে চলেছে সাইবারদুনিয়া। অসমের রীতি অনুযায়ী অথিতিদের উত্তোরীয় পরিয়ে আহ্বান করা হয়, যাকে অসমীয়া ভাষায় বলা হয় গামোসা। সেই গামোসা নিতেই বিরুক্ত হতে দেখা গেল অভিনেত্রীকে। মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিওটি। এর উত্তরে অবশ্য অন্য কথাই বললেন তিনি।

আরও পড়ুনঃছবির সেট থেকে ফাঁস লুক, আবারও নেটদুনিয়ায় ঝড় তুললেন পারফেকশনিস্ট

আরও পড়ুনঃবাঘি ২-এর আয়ে স্বপ্নের বাড়ি টাইগারের, রইল অন্তরমহলের ছবি

গুয়াহাটি বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর সময় এক ভক্ত তাঁর দিকে গামোসা নিয়ে এগিয়ে এসেছিল। যা দেখেই খানিক ছিটকে গিয়েছিলেন ইয়ামি। নায়িকার ম্যানেজার এবং বডিগার্ডও সেই ভক্তকে আটকে দিয়ে সরিয়ে দেয়। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই হেট কমেন্টস, ট্রোলিংয়ে ভরে চলেছিল সোশ্যাল মিডিয়া। অভিযোগ উঠেছে, ইয়ামি নাকি অসমের সংস্কৃতিকে অসম্মান করেছেন। কিছু নেটিজেনদের মতে, ভক্তটি শুধুমাত্র অভিনেত্রীকে আপ্পায়ন করবেন বলেই গামোসা নিয়ে এগিয়ে গিয়েছিল, কিন্তু তার প্রতি ইয়ামির এই ব্যবহার অত্যন্ত অসম্মানজনক। 

 

 

ট্রোলিং পর্ব চলাকালীনই পাল্টা জবাব এসে গিয়েছিল ইয়ামির তরফ থেকে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির উত্তরে ইয়ামি নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে লিখেছেন, "আমার প্রতিক্রিয়া নিতান্তই আত্মরক্ষার জন্য ছিল। মহিলা হিসেবে, আমি যদি কারও কাছে আসায় অপ্রস্তুত হই তাহলে আত্মরক্ষার জন্য আমার এমন প্রতিক্রিয়া যথাযোগ্য। কাউকে দুঃখ দেওয়ার উদ্দেশ্য আমার ছিল না। কিন্তু অসঙ্গত আচরণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর অধিকার সকলের আছে।"

আরও পড়ুনঃএকই ফ্রেমে সিম্বা-সূর্যবংশী-সিংঘম, ছবির ট্রেলারে ছয়লাপ সিনেদুনিয়া

 

 

কেবল এই একটিই ট্যুইটই নয়, এরপরও আর একটি ট্যুইটে নায়িকা লেখেন, "এই নিয়ে অসমে আমার তৃতীয়বার আসা হল। অসমের মানুষ এবং সংস্কৃতির প্রতি বরাবরই আমি নিজের ভালবাসা ব্যক্ত করে এসেছি। তবে কোনও ঘটনার একটা দিক দেখে কখনই বিচার করা উচিত নয়।"

 

 

এছাড়াও 'দ্য গ্রেট গুয়াহাটি ম্যারাথন ২০২০'র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের একটি ছবি শেয়ার করেছেন, যেখানে তাঁকে জাপি ও গামোসা পরে দেখা যাচ্ছে।