পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান: স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা ছিল না একেবারেই। পরকীয়ার টানে শেষপর্যন্ত তাঁকে শ্বাসরোধ করে খুন করল সিভিক ভলান্টিয়ার স্বামী! অভিযুক্তকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামে।

আরও পড়ুন: পরকীয়ার জেরে নৃশংস হত্যাকাণ্ড, মারধরের পর স্বামীর মুখে 'বিষ ঢালল' স্ত্রী

অভিযুক্তের নাম নূর আলি শেখ। বাড়ি, কেতুগ্রামের কাজিপাড়ায়। কেতুগ্রাম থানায় সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে কর্মরত সে। স্ত্রী রূপসুনা বিবি ও এক সন্তানকে নিয়ে ভরা সংসার। তবে দাম্পত্য়জীবনে সুখী ছিল না নূর। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্য়ে অশান্তি লেগেই থাকত। শুধু তাই নয়, অন্য এক মহিলাপ সঙ্গে বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়েছিল নূর। তার জেরেই কি ঘটল বিপর্যয়?

আরও পড়ুন: বুদ্ধগয়া-খাগড়াগড় বিস্ফোরণকাণ্ড, এবার আল কায়দা যোগে শিরোনামে মুর্শিদাবাদ

প্রতিবেশীদের অভিযোগ, রবিবার রাতে স্ত্রী রূপসুনাকে মুখে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করে নূর। তারপর মৃতদেহটি বাড়ি রেখে থানায় ডিউটি করতে চলে যায় সে! কিন্তু ঘটনাটি চাপা থাকে না। মৃতার বাপের বাড়িতে খবর দেন পাড়ার লোকেরা। তাঁরা যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছন, তখন দেখেন, ঘরের বিছানায় মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন রূপসুনা। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, তাঁর গলার কাছে ও পায়ে কালশিটের দাগ ছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ এবং মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত নূর আলি শেখকেও। তার কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন সকলেই।