পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান- চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠেছিল পূ্র্ব বর্ধমানের কাটোয়া কলেজে। কলেজের অধ্যাপকদের বিরুদ্ধে টাকা নিয়ে পরীক্ষায় বেশি নম্বর দেওয়ার অভিযোগ। প্রকাশ্যে এসেছে ছাত্রদের সঙ্গে কথা বলার অডিও ক্লিপিং এবং হোয়াটসঅ্য়াপ চ্যাট। ঘটনাটি ঘটেছে কাটোয়া কলেজের জুওলজি বিভাগে। শুধু তাই নয়, বিভাগীয় প্রধানের বিরুদ্ধে এক ছাত্রী কুপ্রস্তাব ও অশ্লিল ভিডিও এবং কুরুচিকর ম্যাসেজে পাঠানোরও অভিযোগ ওঠে। সেই ঘটনায় অধ্য়াপকদের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করল কলেজ কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন-শুভেন্দু গড়ে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল, প্রাক্তন প্রধানের বিরুদ্ধে দর্নীতির অভিযোগে সরব বর্তমান

কাটোয়া কলেজে জুওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহ তিন জন অধ্য়াপকের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। অডিও ক্লিপিং, অশ্লিল ভিডিও, হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের স্কিনশট সহ সমস্ত তথ্য়প্রমাণ কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেয় ছাত্র-ছাত্রীরা।  অডিও ক্লিপিং, অশ্লিল ভিডিও, হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের স্কিনশট সহ সমস্ত তথ্য়প্রমাণ কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া হয়।  

আরও পড়ুন-সিপিএম পার্টি অফিসে ভাঙচুর-আগুন, হাওড়ায় অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে

সেই ঘটনার পাঁচ দিন পরই অভিযুক্ত অধ্যাপকদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করল কলেজ কর্তৃপক্ষ। কলেজ পরিচালন কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাটোয়া কলেজে গঠিত হল তদন্ত কমিটি। পাশাপাশি, অভিযুক্ত ওই তিন অধ্য়াপককে পরীক্ষার যাবতীয় প্রক্রিয়া থেকে বাতিল করা হয়েছে। চার সদস্যের তদন্ত কমিটি আগামী চার মাসের মধ্য়ে তাঁদের তদন্ত রিপোর্ট জমা দেবে কলেজ কর্তৃপক্ষকে।