সঞ্জীব কুমার দুবে, পূর্ব মেদিনীপুর-দুর্নীতির অভিযোগে দলের নির্দেশে আগেই ছুটিতে পাঠানো হয়েছিল পঞ্চায়েত প্রধানকে। তাঁর জায়গায় নতুন প্রধান আসার পরেও প্রাক্তন প্রধান অবাধে দুর্নীতি চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ। প্রাক্তনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে সরব হয়ে পথসভা করলেন বর্তমান করলেন প্রধান। সেই প্রকাশ্য সভা রীতিমত ভাইরাল হয় সোশ্য়াল মিডিয়ায়। ঘটনার জেরে তীব্র অস্বস্তিতে তৃণমূল।

আরও পড়ুন-সিপিএম পার্টি অফিসে ভাঙচুর-আগুন, হাওড়ায় অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদলের ইটামগরা দুনম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে তৃণমূল পরিচালিত। মাসখানের আগে পর্যন্ত ওই পঞ্চায়েতের প্রধান ছিলেন শম্পা কাঁপা। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় ঘর পাইয়ে দেওয়ার নামে তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। জেলা নেতৃত্বের নির্দেশে তাঁকে ছ মাসের জন্য ছুটিতে পাঠানো হয়। মহিষাদলের বিডিওর কাছে আবেদন করে তিনি নিজেই ছুটি যান। তাঁর জায়গায় নতুন প্রধান হন উপপ্রধান রামকৃষ্ণ দাস। এরপর, বর্তমান প্রধান রামকৃষ্ণ দাস প্রাক্তন প্রধান শম্পা কাঁপার বিরুদ্ধে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের সরব হয়ে বুথে গিয়ে পথসভা করেন। যা কিনা রীতিমত ভাইরাল হয়। তারপরই প্রকাশ্যে আসে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল।

আরও পড়ুন-চাল-চাকরি-ত্রিপল-আমপান ত্রাণের টাকা চুরি করেছে তৃণমূল সরকার, অগ্নিমিত্রার নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা

যদিও, শম্পা কাঁপার বিরুদ্ধে নতুন করে দুর্নীতির অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেন শম্পা কাঁপা। তাঁর বিরুদ্ধে চক্রান্ত চলছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে বিজেপি। রেশন থেকে আমপান শাসকদল সব জায়গাতেই দুর্নীতি করছে বলে অভিযোগ করেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন-ফের তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে, দলীয় বিধায়কের বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতার বিতর্কিত মন্তব্য ভাইরাল

যদিও, শুভেন্দু অধিকারীর গড় পূর্ব মেদিনীপুরে এধরনের অভিযোগ নতুন নয়। শুভেন্দুর নিজের বিধানসভা কেন্দ্র নন্দীগ্রামেও আমপান ত্রাণ মোকাবিলায় দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। এবার মহিষাদলেও দুর্নীতির নিয়ে প্রকাশ্য এল তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল।