বর্ধমান স্টেশনের পোর্টিকো ভেঙে পড়লেও ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক রয়েছে। এমনটাই জানালেন পূর্ব রেলের জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী। তিনি জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত এক জনের জখম হওয়ার খবর মিলেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার জন্য রেল পরিষেবার কোনওভাবেই ব্যহত হয়নি বলেই জোর গলায় জানিয়েছেন নিখিল চক্রবর্তী। তিনি আরও জানিয়ে বলেছেন, ভবন ধসে পড়ার ঘটনাটি যেখানে ঘটেছে সেটা প্ল্যাটফর্মের বাইরে। তাঁর মতে, ধসে পড়া অংশটি মূল ভবন নয়। তার সঙ্গে জুড়ে থাকা পোর্টিকো বা বারান্দা। 

মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিকের মতে, ভেঙে পড়া অংশে কাজ চলছিল। রেল ভবনটি শতাধিক বছরের পুরনো। সম্প্রতি এর দুরাবস্থার জন্য সংস্কারের কাজ করছিল বাইরের একটি সংস্থা। তিনি জানিয়েছেন, পুরো ঘটনাটাই তদন্ত করে দেখা হবে। কিন্তু, পোর্টিকো ভেঙে পড়ার জন্য কোনওভাবেই ট্রেল চলাচল বন্ধ করা হয়নি বলেই দাবি করেন তিনি। 

বর্ধমান স্টেশনের বাইরে অবশ্য দাঁড়িয়ে থাকা মানুষ জনের দাবি, পোর্টিকোর ধসের পরই বেশ কিছুক্ষণ ট্রেন চলাচল করতে দেখা যায়নি। ১ নম্বর প্ল্যাটফর্মটি মূলত ডাউন লোকাল ট্রেন এবং দূরপাল্লার ট্রেনের জন্য ব্যবহৃত হয়। দুই এবং তিন নম্বর প্ল্যাটফর্ম মূলত দূরপাল্লার ডাউন ট্রেনের জন্য ব্যবহৃত হয়। কিন্তু, ঘটনার অনেকক্ষণ পরে কোনও রেল লাইন দিয়েই ট্রেন চলাচল করতে দেখা যায়নি।