Asianet News BanglaAsianet News Bangla

CITI Bank Will No Longer In Ind- আর্থিক ক্ষতির মুখে সিটি ব্যাঙ্ক, কোটাক, অ্যক্সিক ব্যাঙ্কের পকেটে CITI Bank

আর্থিক ক্ষতির জন্যই ব্যবসা হস্তান্তরের কথা ভাবা হয়েছে। আগামি দিনে সিটি গ্রুপ হংকং,লন্ডন,সিঙ্গাপুর ও ইউনাইটেড আরব এমিরেটসে শুধুমাত্র কর্পোরেট ও বিনিয়োগ ব্যাঙ্কিং এবং সম্পদ ব্যবসায় ফোকাস করবে। 
 

CITI Bank Is Going To Be sold Out
Author
Kolkata, First Published Oct 30, 2021, 11:16 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভারতে সিটি গ্রুপের রিটেইল ব্যবসা(Retail Business) বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, থুরি বিক্রি হয়ে যাচ্ছে কি? সিটি গ্রুপের এই ব্যবসা কেনার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে ভারতের ৩ টি বেসরকারি ব্যাঙ্ক। কোটাক মহিন্দ্রা ব্যাঙ্ক, অ্যক্সিস ব্যাঙ্ক ও ইন্ডাসইন্দ ব্যাঙ্ক। ১৯৮৫ সালে ভারত সহ বিশ্বের ১৩ টি দেশ জুড়ে ব্যবসা শুরু করেছিল সিটি ব্যাঙ্ক(CITI Bank)। লাভের অঙ্কটা ছিল ২ বিলিয়ন ডলার। সিটি গ্রুপের গ্লোবাল সিইও, জেইন ফ্রাসের(Jain Fraser) এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন,ব্যবসায় আর্থিক ক্ষতির(Lack Of Scale)জন্যই ব্যবসা হস্তান্তরের কথা ভাবা হয়েছে। আগামি দিনে সিটি গ্রুপ হংকং(Hongkong), লন্ডন(Landan), সিঙ্গাপুর(Singapur) ও ইউনাইটেড আরব এমিরেটসে(UAE) শুধুমাত্র কর্পোরেট ও বিনিয়োগ ব্যাঙ্কিং(Investment Banking) এবং সম্পদ ব্যবসায় ফোকাস করবে। 

আরও পড়ুন- Diwali Home Lone Offer- স্বপ্নের বাড়ি গড়তে চান, হোমলোনের সুদে মিলছে আকর্ষণীয় ছাড়


শীঘ্রই শুরু হবে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা(Bilateral Negotiation)। তারপর আসন্ন শীতেই অর্থাৎ এক-দুমাসের মধ্যেই ঘোষণা হবে বিজয়য়ীর নাম। ইতিমধ্যেই দরদাতারা(Bidders) সমস্ত নগদ বিড জমা (Submitted Cash Bid) দিয়েছে। এদের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী দরদাতা হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে কোটাক মহিন্দ্রা্ ব্যাঙ্ক ও অ্যক্সিস ব্যাঙ্ক। আর সম্ভবত সিটি গ্রুপের ব্যবসা কিনতে সক্ষমও হবে এই দুই ব্যাঙ্ক। বলা বাহুল্য ডিবিএস(DBS), আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কICICI) ও এইডিএফসি ব্যাঙ্কও(HDFC) প্রথম পর্বের বিডিং(Bidding)-এ এই বিষয়ে উৎসাহ দেখিয়েছিল। 

আরও পড়ুন- Facebook Name Change- ফেসবুক হয়ে গেল 'মেটা' বিরাট ঘোষণা মার্ক জুকারবার্গের


সিটি ব্যাঙ্কের রিটেইল ব্যাবসায় রয়েছে ক্রেডিট কার্ডস(Credit Cards), রিটেইল ব্যাঙ্কিং(Retail Banking), হোম লোনস(Home Loans), ও সম্পদ ম্যানেজমেন্ট(Wealth Management)। গোটা ভারত(India) জুড়ে এই ব্যাঙ্কের ৩৫ টি শাখায় কর্মরত রয়েছেন প্রায় ৪০০০ কর্মী। অ্যাডভানসেস আর ডিপোজিটের নিরিখে ভারতে এই ব্যাঙ্কের শেয়ার  রয়েছে যথাক্রমে ০.৬ শতাংশ ও ১.১ শতাংশ। অধিগ্রহনের মাধ্যমে(Through The Acquisition) সম্ভাব্য ক্রেতারা ক্রেডিট কার্ড ও মর্টগেজ ব্যবসাকে আরও শক্তিশালী করবে। গত এক বছরে ২ শতাংশ CAGR সহ এই ব্যাঙ্কের ক্রেডিট কার্ডের ব্যবসা নেমে এসেছে ষষ্ঠ স্থানে। তবে গড় খরচ সামগ্রিক শিল্পের তুলনায় বেশি ছিল। অগাস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী, ব্যাঙ্কের রিটেই বিভাগে গ্রাহক সংখ্যা ছিল প্রায় ২.৯ মিলিয়ন আর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংখ্যা ছিল ১.২ মিলিয়ন। ক্রেডিট স্যুইসের রিসার্চ বিভাগের প্রধান আশিষ গুপ্তা(Ashish Gupta) জানিয়েছেন, সিটি ব্যাঙ্কের ২.৬ মিলিয়ন কার্ড বেস কোটাক মহিন্দ্রা ও ইন্ডাসইন ব্যাঙ্কের মূল সম্পদ যা তাদের বর্তমান কার্ড বেসের দ্বিগুণ হবে। তিনি আরও বলেছেন, কোম্পানির ২.৫ মিলিয়ন প্রিমিয়াম রেটেইল গ্রাহক ক্রস-সেল অধিগ্রহণকারী কি কি অর্জন করতে পারে তার ওপরই নির্ভর করছে সিটি গ্রুপের হস্তান্তরের বিষয়টি।

আরও পড়ুন- Fuel Prices Hike: আলো নিভিয়ে পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ, পেট্রোল-ডিজেল বিক্রি বন্ধ ৩০ মিনিট

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios