Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Sap India-ভারতের উন্নতির অঙ্গ হতে পেরে এবং অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়ে গর্বিত স্যাপ ইন্ডিয়া, বললেন কুলমীত বাওয়া

২০২১ সালে ভারতে কাজ করার ক্ষেত্রে ২৫ বছর উদযাপন করছে স্যাপ ইন্ডিয়া। বিশ্বব্যাপি স্যাপ ব্যবহারে প্রথম সারিতে উঠে এসেছে ভারত।

India Has Become One of The Fastest Growing Markets in The World in Terms of SAP
Author
Kolkata, First Published Nov 24, 2021, 10:58 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সালটা ছিল ১৯৯৬(1996)। ভারতে ব্যবসা শুরু করেছিল স্যাপ ইন্ডিয়া(Sap India)। সেই সময়ে বেঙ্গালুরুতে(Bangaluru) ছিল সংস্থার প্রধান দফতর(Head Quater)। ২০২১ সালে ভারতে(India) কাজ করার ক্ষেত্রে নিজেদের ২৫ বছর উদযাপন(celebrating 25 Years) করছে স্যাপ ইন্ডিয়া(Sap India)। বিশ্বব্যাপি স্যাপ ব্যবহারে প্রথম সারিতে(1st Row) উঠে এসেছে ভারত(India)। আগামী কয়েক বছরে, অস্বাভাবিক বৃদ্ধির হারের গতিতে নিজের প্রতিযোগীদের পিছনে ফেলে দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাওয়ার প্রবল সম্ভবনা রয়েছে ভারতের। ভারতীয় উপমহাদেশে স্যাপের প্রেসিডেন্ট তথা ম্যানেজিং ডিরেক্টর(MD) কুলমীত বাওয়া(Kulmit Bawa), এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছন, অন্যান্য প্রযুক্তি সংস্থা গুলির তুলনায় প্রতিযোগীতার মার্কেটে স্যাপ(Sap) অনেক দ্রুত হারে দেশে বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেই সঙ্গে তিনি আরও বলেন,স্যাপ ইন্ডিয়া(Sap India) সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। ১৯৯৬ সাল(1996) থেকে যখন ভারতে(India) নিজেদের কাজ শুরু করে স্যাপ ইন্ডিয়া(Sap India) তখন ব্যাঙ্গালুরুতে(Bangaluru) সংস্থার প্রধান দপ্তরের পাশাপাশি  কলকাতা, নয়া দিল্লি, মুম্বই সহ দেশের ৯টি শহরে ছিল স্যাপের(Sap)দফতর। উল্লেখ্য, ভারতের প্রতিবেশি দেশ বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাতেও বিভিন্ন কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত ছিল স্যাপ(Sap)।  ভারতের উন্নতির অঙ্গ হতে পেরে এবং সেখানে অংশগ্রহণ করতে পেরে গর্বিত স্যাপ ইন্ডিয়া(Sap)। প্রথম সারির এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেছেন  ম্যানেজিং ডিরেক্ট কুলমীত বাওয়া(Kulmit Bawa,MD Of Sap)।

আরও পড়ুন-Parliament: ক্রিপ্টোকারেন্সিসহ ২৬টি বিল পেশ হবে সংসদে, থাকছে কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল

 আগামী কয়েক বছরে আরও উন্নতির জন্য অপেক্ষা করে আছে স্যাপ ইন্ডিয়া। কুলমীত বাওয়ার মতে, সেই বছরগুলি আরও বেশি উত্তেজনাপূর্ণ হতে চলেছে। তিনি আশাবাদী আগামী কয়েক বছর অভূতপূর্ব উন্নতির সাক্ষী থাকবে ভারত। কারন  আগামী কয়েক বছরে বিপুল বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে ভারতে। ভারতের বাজার, ব্যবসায়িক সংস্কৃতি, প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অসাধারণ মেধা এবং ভারতের ভৌগলিক অবস্থানই ভারতকে এগিয়ে যেতে দেশকে সাহায্য করবে বলে মনে করছেন স্যাপের প্রেসিডেন্ট । অতিমারি কোভিড পরিস্থিতিতে দুই বছরের অনিশ্চয়তার পরেও সমস্ত অর্থনৈতিক সূচকগুলিই যে বিশাল পুনরুদ্ধারের দিকে ইঙ্গিত করছে তা নয়, তবুও নতুন ডিজিটাল ইন্ডিয়া সাক্ষী ত থাকবে স্যাপ ইন্ডিয়া। তথ্য ও প্রযুক্তিগত উন্নতির ক্ষেত্রে ভারতের বিপুল মেধা রয়েছে বলেই মনে করেন কুলমীত বাওয়া।

স্যাপের প্রেসিডেন্ট তথা ম্যানেজিং ডিরেক্টর কুলমীত বাওয়া বলেন, করোনা অতিমারির অনেক ইতিবাচক প্রভাবও রয়েছে। আগে শুধুমাত্র বড় ব্যবসাতে ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করা হত। এখন ছোট ব্যবসায়ীরও  এই পদ্ধতি ব্যবহারের অনেক  সুবিধা উপভোগ করতে পারেন। তাই বর্তমানে দেখা যাচ্ছে অনেক ছোট ব্যবসায়ীরাও আর্থিক লেনদেনে প্রযুক্তি নির্ভর পদ্ধতিই ব্যবহার করছেন।

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios