দেশজুড়ে চলেছ পঞ্চম দফার লকডাউন। আনলক পর্ব-১ -এ পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেকটাই শিথিল হয়েছে। করোনা ভাইরাসের জেরে তৎকালীন সমস্ত আধার কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এবার ফরে খোলা হল এই কেন্দ্রগুলি। আধার কার্ড আপডেট করার জন্য সারা দেশজুড়ে ১৭,০০০-এরও বেশি আধার কেন্দ্র খুলে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে সাধারণ মানুষের অনেকটাই সুবিধা হবে।

আরও পড়ুন-শুধু মশলা হিসেবে নয়, সুস্থ থাকার অব্যর্থ দাওয়াই এই ঘরোয়া উপাদান...

কয়েকদিন আগেই ইউআইডিএআই-এর পক্ষ থেকে টুইট করে এই সেন্টার খোলার বিষয়ে জানানো হয়েছে। ইউআইডিএআই-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস, বিএসএনএল ও কমন সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে সঞ্চালিত ১৭ হাজারেরও বেশি আধার কেন্দ্র খুলে দেওয়া হয়েছে। বর্তমান স্থানীয় পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে আরও বেশি সেন্টার খোলা হবে। আপনার নিকটবর্তী আধার কেন্দ্রে গিয়ে আধার কার্ডের আবেদন, এনরোল করার পাশাপাশি আপনি  ইউআইডিএআই-এর ডেটাবেসে নাম, ঠিাকানা, মোবাইল নম্বর, ই-মেল আইডি, জন্মতারিখ, জেন্ডার, বায়োমেট্রিক ডেটাও বদলাতে পারবেন।

 

ভারতকে ডিডিটাল করার লক্ষ নিয়ে এক বড় পদক্ষেপ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। স্মার্ট করার তাগিদে সব কিছুই এখন স্মার্ট। আধার কার্ড থেকে রেশন কার্ড সবকিছুই এখন স্মার্ট। বর্তমানে বৈধ পরিচয়পত্র হিসেবেও আধার কার্ড ব্যবহার করা হয়। বর্তমানে সমস্ত জায়গায় প্রামাণ্য দলিল হিসেবে এই আধার কার্ড ব্যবহার করা হয়। প্রতিটা ক্ষেত্রেই বাধ্যতামূলক করা হয়েছে আধার কার্ড। আগামী জুন মাসের ৩০ তারিখের মধ্যে প্যান-আধার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তাই আর দেরি নয়,  ৩০ জুনের আগেই করে নিন এই জরুরি কাজ। তা না হলেই বাতিল হবে আপনার প্যান কার্ড। উল্লেখ্য, ৩০ তারিখের পরও যদি লিঙ্ক না করা হয়ে থাকে তাহলে এটি কোনও কাজে আসবে না। আয়কর বিভাগও এটিকে অবৈধ করে দেবে।