যেদিন উত্তরবঙ্গে পৌঁছলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সেদিনই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের গোষ্ঠী সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল কোচবিহারের দিনহাটা কলেজ। সংগঠনের একটি গোষ্ঠীর সদস্যদের উপর অপর গোষ্ঠীর সদস্যরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ।  গুরুতর জখম তিনজন।

দিনহাটা কলেজে ছাত্র সংসদ তৃণমূল ছাত্র পরিষদেরই দখলে। দীর্ঘদিন ধরেই কলেজে সংগঠনের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন অজয় রায় নামে শাসকদলের এক ছাত্রনেতা। সোমবার সকালে টিএমসি-র অপর গোষ্ঠীর নেতা সাবির শাহ চৌধুরী ও জয় ঘোষ বেশ কয়েকজন বহিরাগতকে নিয়ে কলেজে ঢুকে পড়ে এবং তৃণমূলের ছাত্রনেতা অজয় রায়ের অনুগামীদের উপর হামলার চালানো চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। খবর পাওয়ামাত্রই দিনহাটা কলেজে পৌঁছয় বিশাল পুলিশ। পুলিশ যখন পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছে, তখন কলেজের বাইরে ফের অজয় রায়ের অনুগামীদের হামলা হয় বলে জানা গিয়েছে। ঘটনায় তিনজন গুরুতর জখম হয়েছেন। আহতেরা ভর্তি কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। এদিকে এই ঘটনার জেরে তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে দিনহাটা কলেজে। অশান্তি ঠেকাতে কলেজে মোতায়েন বিশাল পুলিশবাহিনী।

আরও পড়ুন: কাকার সঙ্গে বাড়ি ফেরার পথে গুলিবিদ্ধ কিশোর, ফের শুটআউট মুর্শিদাবাদে

উল্লেখ্য, সোমবার উত্তরবঙ্গ উৎসবের সূচনা করতে শিলিগুড়িতে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুপুর তিনটে নাগাদ উৎসবের সূচনা করেন তিনি। উৎসবের মঞ্চ থেকে নাম না করে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে একহাত নেন মুখ্যমন্ত্রী। এরইমধ্যে দিনহাটা কলেজের ঘটনায় স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অস্বস্তি বাড়ল বলে মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।