ব্যবধান একমাসের। পুরভোটের আগে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে ফের উত্তপ্ত কোচবিহারের দিনহাটা।  ভাঙচুর চলল দলের পার্টি অফিসে, আগুন লাগিয়ে দেওয়া হল গাড়িতেও। ঘটনায় নাম জড়িয়েছে খোদ দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ-র।

আরও পড়ুন: শিয়রে পুরভোট, স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক শুরু টিম পিকে-এর

ফরওয়ার্ড ব্লক থেকে তৃণমূলে এসেছেন তিনি। ২০১৬ সালে বিধানসভা ভোটে শাসকদলের প্রার্থী হিসেবে দিনহাটা থেকে বিধায়কও নির্বাচিত হন উদয়ন গুহ। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, এলাকার বিধায়কের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি মীর হুমায়ন কবীরের বিবাদ দীর্ঘদিনের। দুই নেতাদের অনুগামীদের সংঘর্ষে সোমবার সকালে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল দিনহাটার নয়ারহাট গোবরাছাড়া এলাকায়। দলের ব্লক সভাপতি অফিসে ভাঙচুর চালান তৃণমূলকর্মীদেরই একাংশ! অফিসের সামনে বেশ কয়েকটি গাড়িতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে। যাঁরা এই ঘটনা ঘটিয়েছেন, তাঁরা সকলেই দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহের অনুগামী বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। এদিকে তাঁর অনুগামীরাই যে দলের ব্লক সভাপতি মীর হুমায়ন কবীরের অফিসে ভাঙচুর চালিয়েছেন, সেকথা মানতে নারাজ তিনি।

 

উল্লেখ্য, কোচবিহারে তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে যে এই প্রথম প্রকাশ্যে চলে এল, তা কিন্তু নয়।  খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখন উত্তরবঙ্গে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের গোষ্ঠী সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় দিনহাটা কলেজ। সংগঠনের এক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করে অপর গোষ্ঠী। গুরুতর জখম হন তিনজন।