হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার ৯ দিন পরে উড়ান চালকের শরীরে মিলল করোনাভাইরাসের নমুনা। তবে আক্রান্ত উড়ান চালক গত মার্চ মাসে কোনও আন্তর্জাতিক বিমানের দায়িত্বে ছিলেন না। গত ২১ মার্চে চেন্নাই থেকে দিল্লিগামী একটি বিমানের উড়ানের দায়িত্বে ছিলেন। তারপর থেকেই স্বেচ্ছাবন্দি ছিলেন স্পাইস জেট বিমানের চালক। 

রবিবার বিমান সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে তাঁদের এক উড়ান চালক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। এই খবর জানার পর থেকেই ওই চালকের সংস্পর্শে যেসব চালক, বিমানকর্মী ও ক্রু মেম্বাররা এসেছিলেন তাঁদেরও আগামী ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারান্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি জানান হয়েছে আক্রান্ত চালকের চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তাঁর শারীরিক অবস্থাও স্থিতিশীল রয়েছে।

 

বিমান সংস্থার পক্ষ থেকে জানান হয়েছে তাঁদের বিমানগুলিকে জীবানু মুক্ত করার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিত সমস্ত পদক্ষেপ মানা হয়েছে। মেনে চলা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া গাইড লাইনও।  সব বিমানই জীবানুমুক্ত করা হয়েছে। সংস্থার যাত্রী ও বিমান কর্মীদের স্বাস্থ্যের দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ১৪ দিন স্বেচ্ছাবন্দি থাকতে হবে, ঘরে ফেরা অভিবাসীদের নির্দেশ বিহার ও উত্তরপ্রদেশ সরকারের

আরও পড়ুনঃ লকডাউনে ভয় পেয়ে রান্নার গ্যাস পেট্রোল ডিজেল মজুত করবেন না, আবেদন ইন্ডিয়ান ওয়েলের

আরও পড়ুনঃ যোগী সরকারের বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অভিযোগ আপ বিধায়ক রাঘবের, পাল্টা এফআইআর দায়ের তাঁর নামে

বর্তমান ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্রমশই ভয়ঙ্কর আকার নিচ্ছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১হাজার ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যাও ২০ ছাড়িয়েছে। এই  পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্বের ওপর জোর দিয়ে গোটা  দেশেই জারি করা হয়েছে লকডাউন। সন্দেহভাজনদের হোম কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে কেন্দ্র। গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে বন্ধ পরিকর কেন্দ্র। কিন্তু ক্রমশই করোনার সংক্রমণের ভয়ঙ্কর রূপ সামনে আসছে। শুধু দেশ নয় গোটা বিশ্বেই করোনা সংক্রমণের ভয়ঙ্কর ছবিটা দেখছে। এই পরিস্থিতিতে গোটা বিশ্বই লকডাউনের পথে হেঁটেছে।