কোভিড ভ্য়াকসিন নেবার পরেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু দুজনের। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, একজন জলপাইগুড়ি জেলার বাসিন্দা এবং অপরজন দার্জিলিংয়ের। করোনা ভ্য়াসসিন নেবার পরেই ওই দুইজন হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এরপরেই মৃত্য়ু হয় তাঁদের। 

আরও পড়ুন, আজ মনোনয়ন পেশের আগে মন্দিরে পুজো দিলেন শুভেন্দু, শুক্রবার শিশিরপুত্রের বর্ণাঢ্য রোড শো হলদিয়ায় 


জলপাইগুড়ির ধুপগিরি শহরের বাসিন্দা কৃষ্ণা দত্ত। পেশায় তিনি ব্যবসায়ী। সোমবার ধূপগিরি গ্রামীণ হাসপাতালে গিয়েকরোনার ভ্য়াকসিন নিয়েছিলেন ষাটোর্ধ্ব ওই ব্যক্তি। এরপরেই ওই হাসপাতালে বেশ অনেকটা সময় পর্যবেক্ষণেও ছিলেন তিনি। তবে পরিবারের দাবি, হাসপাতাল থেকে ফিরে বাড়িতে খাওয়া-দাওয়া করে কৃষ্ণ। দোকানে যাওয়ার পর বিকেল পেরোতেই বমি শুরু হয় তাঁর। ভোর রাতে প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট শুরু হতেই ওই ব্যাক্তিকে ধুপগিরি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিন্তু ততোক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। হাসপাতালে কৃষ্ণ দত্তকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।

 আরও পড়ুন, আজ মমতার উপর 'হামলার' প্রতিবাদে দিল্লির পথে তৃণমূল, ওদিকে অভিযোগ খারিজ করে কড়া চিঠি কমিশনের 


 অপরদিকে, একই দিনে ভ্য়াকসিন নিয়েছিলেন দার্জিলিয়ের বাসিন্দা পারুল দত্ত। তার বয়েস হয়েছিল ৭৫ বছর। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর তারও কোনও সমস্যা হয়নি। পর্যবেক্ষণে থাকার  পরে তিনিও বাড়ি ফিরে যান। এদিকে কয়েকঘন্টা পরেই তাঁর ডায়েরিয়া শুরু হয়। দ্রুত তাঁকে নিয়ে আসা হয় খড়িবাড়ি ব্লকের বাতাসী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। এরপর পারুলকে  উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে পাঠিয়ে দেন চিকিৎসকেরা। সেখানে ভর্তি হওয়ার একটু পরেই মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধার।