পুলিশের লাঠির আঘাতেও মানুষকে বাগে আনা যাচ্ছে না। করোনা সচেতনতায় এবার রাজপথকে সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নিল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন। জোরকদমে রাস্তায় আলপনা দেওয়ার কাজ চলছে বালুরঘাটে।

দক্ষিণ দিনাজপুরে জেলার সদর শহর বালুরঘাট। শহরের ব্যস্ততম এলাকাগুলিকে চিহ্বিত করে আলপনা দেওয়ার কাজ শুরু করেছেন ১৫ থেকে ২০ জন শিল্পী। স্ট্রিট পেইন্টিংয়ের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের নানা উপসর্গ ফুটিয়ে তুলছেন তাঁরা। কীভাবে সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে, সে বার্তাও ফুটে উঠছে আলাপনাতেই। 

আরও পড়ুন: রাস্তা জুড়ে সুদৃশ্য আলপনা, করোনা সচেতনতায় অভিনবত্বে নজর কাড়ছে পুলিশ

শিল্পীর তুলে টানে অচেনা হয়ে উঠেছে  বালুরঘাটের পাবলিক বাসস্ট্যান্ডের চৌরাস্তার মোড়। শিল্পী শ্যামল দাস জানালেন, জেলা প্রশাসনের তাঁদের কাছে বার্তা আসে, শিল্পকলার মাধ্যমে মানুষকে করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্ক করতে হবে। এরপর আর সময় নষ্ট করেননি, সহ-শিল্পীদের নিয়ে কাজে নেমে পড়েছেন। এক এক জায়গায় আলপনা দিতে সময় লাগছে ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা।   বালুঘাট শহরে স্ট্রিট আর্ট বা স্ট্রিট পেইন্টিংয়ের তত্ত্বাবধান করছেন দেবাশিষ শিকদার। তিনি জানালেন, স্ট্রিট পেইন্টিং-এর দীর্ঘ ইতিহাস আছে। জেলাশাসকের উদ্বাবনী শক্তির কারণে এই শিল্পকে মানুষের কল্যাণে ব্য়বহার করার সম্ভব হচ্ছে। 

আরও পড়ুন: বিয়ের জন্য জমানো ছিল টাকা, করোনা ত্রাণে এগিয়ে এলেন হবু দম্পতি

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, বালুরঘাট শহর তো বটেই, মানুষকে করোনা নিয়ে সচেতন করতে গঙ্গারামপুরে হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকা, চৌরাস্তার মোড়, পতিরাম ও বুনিয়াদপুরের রাস্তায় আঁকা হবে আলপনা। করোনা সচেতনতায় এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ মানুষও।