রাজ্য বিধানসভা ভোটের আগে করোনার টিকাকরন নিয়ে বিতর্কে জড়াল শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। টিকাকরনে প্রাপকদের তালিকায় প্রথম নাম রয়েছে তৃণমূল বিধায়কের। তাঁকে ঘিরে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে আলিপুরদুয়ারে। যদিও, ওই বিধায়কের দাবি তাঁর ডক্টরেট ডিগ্রি থাকায় কোথাও একটা ভুল হয়েছে। কিন্তু, টিকাকরনে তৃণমূল আগে সুবিধা পেতে চাইছে বলে দাবি করল বিজেপি।

আরও পড়ুন-টিকাকরণের প্রথমদিনই তৃণমূলের টিকা কেলেঙ্কারি, স্বাস্থ্য়কর্মীদের সঙ্গেই ভ্যাকসিন নেতাদেরও

আলিপুরদুয়ার হাসপাতালে টিকাকরণের কর্মসূচি চলছে। করোবনা টিকাকরনের শুরুতেই প্রাপকদের তালিকায় নাম রয়েছে তৃণমূল বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। তা নিয়ে শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপি নেতারা। বিজেপির জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা বলেন, ''ভোটের আগে করোনার টিকাকরণ নিয়েও সুবিধা পেতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে প্রথমেই টিকা নিতে চাইছেন তৃণমূল বিধায়ক''। রাজ্য জুড়ে টিকাকরনের প্রথম দিনেই তীব্র অস্বস্তিতে পড়ে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। 

আরও পড়ুন-কেন জারি করা হয়েছিল জনতা কারফিউ, কাঁসর বাজানোর রহস্য কী ছিল, খোলসা করলেন প্রধানমন্ত্রী

অন্যদিকে, তৃণমূল বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীর দাবি, ''আলিপুরদুয়ার হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান। আমার ডক্টরেট ডিগ্রিও আছে। মনে হয়ে জেলা স্বাস্থ্য দফতরের ভুল বোঝাবুঝির জেরেই আমার নাম তালিকার প্রথমে চলে এসেছে। আমি জানতে পেরে মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে প্রথমেই টিকা নিতে অস্বীকার করেছি। তবে টিকাকরনের গোটা প্রক্রিয়ার উপর নজর রাখতে হাসপাতালে উপস্থিত রয়েছি''।