করোনাভাইরাসের ভয়ঙ্কর সংক্রমণ থেকে রেহাই পাচ্ছে না ১০ মাসের দুধের শিশুও। ছোট্ট এই শিশুটিও করোনাভাইরাসের আক্রান্ত। বর্তমানে ভর্তি রয়েছে হাসপাতালে। চিকিৎসকদের পরিচর্যায় বর্তমানে কিছুটা হলেও সুস্থ রয়েছে। তবে এখনও সংকট কাটেনি বলেই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা।  কর্নাটকের সাজিপানাডু গ্রামের বাসিন্দা এই সদ্যোজাত। 

ছোট্ট শিশু করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ারা পরও রীতিমত আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে সাজিপানাডু গ্রামে। গোটা গ্রামই চলে গেছে হোম কোয়ারেন্টাইনে। কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে প্রশাসনও। বর্তমানে কাউকেই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না গ্রামে। বাইরেও কাউকে  বার হতে দেওয়া হচ্ছে না। তবে গ্রামের বাসিন্দারা ইচ্ছের সঙ্গেই মেনে নিয়েছেন হোম কোয়ারেন্টাইন। 

পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সদ্যোজাতর পুরো পরিবারকে। আক্রান্ত শিশুটির পরিবারের সদস্যরা কার কার সঙ্গে মেলামেশা করেছিলেন তাও খতিয়ে দেখছে স্থানীয় প্রশাসন। খতিয়ে দেখা হচ্ছে পরিবারটির ভ্রমণের ইতিহাসও। 

আরও পড়ুনঃ করোনার কোপে ভারত, দেশ জুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১০২৯

আরও পড়ুনঃ স্বস্তির খবর দিল আইআইটি, করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে কারা জানতে এবার তৈরি হল অ্যাপ

আরও পড়ুনঃ চিনে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৫৪, বিদেশিদের ঘাড়ে দোষ চাপাতে ব্যস্ত জিংপিং প্রশাসন

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে আক্রান্ত শিশুটি তার পরিবারের সঙ্গে কেরল গিয়েছিল। সেখান থেকেই সংক্রমিত হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আক্রান্ত শিশুটি রামচন্দ্র বাইয়ারি হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছে। 
 
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রীতিমত উদ্বেগ বাড়িয়েছে কর্নাটাক সরকারের। শনিবার পাওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী নতুন করে ১০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। আক্রান্তের সংখ্যা ৭৫-এরও বেশি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কর্নাটক সরকার কেরলগামী সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।