সমর্থক-ভক্তরা এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না। বিশ্বকাপের অনেক আগে থেকে ভারতকে বিশ্বকাপ ২০১৯ জেতার অন্যতম দাবিদার ধরা হচ্ছিল। আর গ্রুপ স্তরে দুর্দান্ত খেলে ভারতীয় দলও সেই প্রত্যাশার পারদটা আরও চড়িয়ে দিয়েছিল। তারপর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে এই হারটা সকলকে চমকে দিয়েছে। কিন্তু ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানিয়েছেন, তাঁরা অবশ্য়ই হতাশ কিন্তু ভেঙে পড়েননি।  

কারণ তাঁরা জানেন গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে তাঁরা গর্ব করার মতো ক্রিকেট খেলেছেন। কিন্তু বুধবার মাত্র '৪৫ মিনিটের বাজে ক্রিকেট' খেলার খেসারত দিতে হল দলকে। বিরাট জানিয়েছেন, বুধবার ভারতের ইনিংসের শুরুর ওি ৪৫ মিনিটেই ম্যাচ বার করে নেন কিউই বোলাররা।

বস্তুত ওই সময়ে দারুণ জায়গায় বল রাখছিলেন নিউজিল্যান্ডের ম্যাট হেনরি ও ট্রেন্ট বোল্ট। আর তাদের পরাক্রমেই ৪ রানের মধ্যেই এদিন প্যাভিলিয়নে ফিরে যান রোহিত, বিরাট ও কেএল রাহুল। তাঁরা তিনজনেই ১ রান করে করেন। অথচ গোটা বিশ্বকাপে ভারতের মোট রানের ৬৭ শতাংশই এসেছে এই তিন জনের ব্যাট থেকেই।

বিরাট দাবি করেছেন খেলার প্রথমার্ধে অর্থাৎ নিউজিল্যান্ড ইনিংস চলাকালীনও তাঁরা খুবই ভাল খেলেছেন। ২৪০ রানের লক্ষ্যমাত্রাটাও সাধ্যের মধ্যেই ছিল। কিন্তু সব পাল্টে দিয়েছে ওই ৪৫ মিনিটই। তবে পরের দিকে ধোনি-জাদেজার জুটি ফের আশা দেখিয়েছিলেন। জাদেজার ব্য়াটিং-এর ভুয়সী প্রশংসা করেছেন বিরাট।

প্রাথমিকভাবে বিরাট জানিয়েছেন, তাঁদের একটাই ত্রুটি তাঁর চোখে পড়েছে। নিজেদের শট বাছাই আরও ভাল হতে পারত বলে মনে করেন তিনি। তবে নকআউট স্তরে যে কেউই জিততে পারে বলেও জানিয়েছেন। সবশেষে বলেছেন চাপের মুখে সাহসী ক্রিকেট খেলারই পুরস্কার পেয়েছে ব্ল্যাকক্যাপসরা।