গত শনিবার (২২ জুন), সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ভারতীয় দলকে মাত্র ২২৪ রানে আটকে রেখে সেই রানটা প্রায় তাড়া করে ফেলেছিল আফগানিস্তান। বিশ্বকাপে প্রথমবার আফগানিস্তানের লডা়কু চরিত্র প্রকাশ পেয়েছিল। সোমবার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একই মাঠে টসে জিতে আগে বল করার রাস্তাতেই থাকল আফগানিস্তান। এদিন মাঠ ভেজা থাকার কারণে টস হতে কিছু দেরি হয়।

আফগানিস্তানের অধিনায়ক গুলবদিন নইব জানিয়েছেন আগের ম্য়াচে তাঁরা দেখেছেন দ্বিতীয়ার্ধে পিচের চরিত্রের খুব বেশি পরিবর্তন হয় না। আর এই দিন আকাশ মেঘলা থাকায় প্রথমে বল করার জন্য আদর্শ পরিস্থিতি বলে মনে করছেন তাঁরা।

বাংলাদেশী অধিনায়ক মাশরাফি মোর্তাজা অবশ্য পিচ নিয়ে ভিন্ন মত ব্যক্ত করেছেন। তাঁর মতে এই পিচে ইতিমধ্য়েই বেশ কয়েকটি খেলা হয়ে গিয়েছে। কাজেই দ্বিতীয় ইনিংসে পিচ মন্থর হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছে বাংলাদেশ।    

তিনি আরও জানান বিশ্বকাপের অন্যান্য স্টেডিয়ামের পিচের থেকে টাইটানিকের শহরের পিচের চরিত্র আলাদা। বেশ মন্থর, বল ঘুরছে, পিচে পড়ে বল থমকে আসছে। তাই আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে একজন অতিরিক্ত বোলার খেলালেও এদিন আবার প্রথম একাদশে ফেরানো হচ্ছে সইফুদ্দিন চৌধুরি ও মোসাদ্দেক হোসেনকে। রুবেল ও সাব্বির বাদ পড়ছেন।

অন্যদিকে আফগান দলেও হয়েছে দুটি পরিবর্তন হজতুল্লা জাজাই ও আলমের বদলে এদিন খেলানো হচ্ছে দৌলত জাদরান ও সামিউল্লা শিনওয়ারি-কে।

দেখে নেওয়া যাক এইদিনের দুই দলের প্রথম একাদশ -

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মাহমুদুল্লা, মোসাদ্দেক হোসেন, মহম্মদ সইফুদ্দিন, মেহেদি হাসান, মাশরাফি মোর্তাজা, মুস্তাফিজুর রহমান।

আফগানিস্তান: গুলবদিন নইব, রহমত শাহ, হাশমতউল্লা শহিদি, আসগর আফগান, মহম্মদ নবি, নাজিবুল্লা জাদরান, সামিউল্লা শিনওয়ারি, ইকরাম আলি খিল, রশিদ খান, দৌলত জাদরান, মুজিবুর রহমান।

রোজ বোল হ্যাম্পশায়ার কাউন্টির ঘরের মাঠ। যে কাউন্টি ক্লাবের হয়ে দীর্ঘদিন খেলেছিলেন প্রবাদ প্রতীম লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন। এই মাঠে তাঁর নামে গ্যালারিও রয়েছে। এখনও বিশ্বকাপে ততটা সফল না হওয়া রশিদ খান কি লেগ স্পিনারকহীন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারবেন? আফগানিস্তান কী দেশে ফেরার আগে একটা মরণ কামড় দিতে পারবে? এটাই এক সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। একটা ভারত ম্যাচ অনেক কিছু বদলে দিয়েছে।